• বুধবার   ০৭ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২২ ১৪২৯

  • || ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

‘আগামীতে একমঞ্চে বসে বিজিবি-বিএসএফের খেলা উপভোগ করা যাবে’

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৯ অক্টোবর ২০২২  

‘আগামীতে একমঞ্চে বসে বিজিবি-বিএসএফের খেলা উপভোগ করা যাবে’           
ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিএসএফের জলপাইগুড়ি সেক্টর কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল বিজয় মেহতা বলেছেন, ‘ভারত-বাংলাদেশের সাধারণ জনগণ, উভয় দেশের সরকার ও বিজিবি-বিএসএফের মধ্যকার সম্পর্ক পূর্বের যেকোনো সময়ের তুলনায় বর্তমানে অনেক সৃদৃঢ় রয়েছে। বিজিবি-বিএসএফের মধ্যকার অনুষ্ঠিত মৈত্রী ভলিবল প্রতিযোগতার জয়-পরাজয় মূখ্য কোনো বিষয় নয়। বিজিবি-বিএসএফের মধ্যকার সুসম্পর্ক গুলোকে জনগণের সামনে প্রকাশ করতেই আমরা দুই বাহিনীর মধ্যে খেলাধূলার আয়োজন করছি। আজকের ভলিবল প্রতিযোগিতা তারই অংশ। আগামীতে এ ধরনের প্রতিযোগিতা গুলোতে উভয় দেশের সাধারণ জনগণকে উপভোগের সুযোগ দেওয়ার জন্য বিজিবি-বিএসএফ একমত হয়েছে। আগামীতে আমরা আরও বেশি আনন্দ উপভোগ করবো।’

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী ইউনিয়নের কাস্টমস মাঠে ভারতের ৭৫তম মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে বিজিবি-বিএসএফের মধ্যে অনুষ্ঠিত মৈত্রী ভলিবল প্রতিযোগিতা শেষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা উভয় সীমান্ত বাহিনী চেষ্টা করছি সীমান্তের যে কোনো ধরনের সমস্যা ব্যাটালিয়ন কমান্ডিং লেভেলে আলোচনা করে তড়িৎ সমাধান করার। এই কাজ অব্যাহত রয়েছে।’ বর্তমানে সীমান্তে চোরাকারবারী ৯০ শতাংশ কমেছে বলে তিনি দাবী করেন।      

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী স্থলবন্দর কাস্টমস মাঠে বুধবার সকালে ভারতের ৭৫তম মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে বিজিবি-বিএসএফ পর্যায়ে মৈত্রী ভলিবল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ভারতের বিএসএফের জলপাইগুড়ি সেক্টর ও বিজিবি রংপুর সেক্টরের মধ্যে এই মৈত্রী ভলিবল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। তিস্তা-৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়ন এই মৈত্রী ভলিবল প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।

বিজিবি-বিএসএফ মৈত্রী ভলিবল প্রতিযোগিতায় দুই সেট খেলায় বিএসএফকে বিজিবি ২-০ পয়েন্টে পরাজিত করে বিজয় ট্রফি ছিনিয়ে নেয়। কাস্টমস মাঠে উপস্থিত হাজার হাজার দর্শক করতালির মাধ্যমে বিজিবি-বিএসএফের খেলোয়াড়দের উৎসাহ দেন। খেলা শেষে হাতীবান্ধা উপজেলার ম্যাগপাই কিন্ডার গার্টেনের শিশু-কিশোররা বাঙালী সাংস্কৃতি তুলে ধরেন। পরে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জলপাইগুড়ি বিএসএফের সেক্টর কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল বিজয় মেহতার উপস্থিতিতে বিএসএফের খেলোয়াড়দের হাতে রানার্স আপ ট্রফি তুলে দেন বিজিবির রংপুর সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল মোঃ ইয়াছির জাহান হোসেন। এরপর বিজিবির খেলোয়াড়দের হাতে চ্যাম্পিয়ন ট্রফি তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ব্রিগেডিয়ার জেনারেল বিজয় মেহতা। পরে বিজিবি-বিএসএফের অতিথিদের মধ্যে ক্রেষ্ট আদান-প্রদান করা হয়।

মৈত্রী ভলিবল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে বিজিবি রংপুর সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল মোঃ ইয়াছির জাহান হোসেনের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন ৬-বিএসএফ ব্যাটালিয়নের পরিচালক অতুল সৈনী, ৪০-বিএসএফ ব্যাটালিয়নের পরিচালক বিভূতি ভূষণ কুমার, ৯৮-বিএসএফ ব্যাটালিয়নের পরিচালক সতীশ কুমার, ১৮০-বিএসএফ ব্যাটালিয়নের পরিচালক সত্যেন্দ্র কুমার পাঠক, জলপাইগুড়ি বিএসএফ হেডকোয়ার্টার্সের কমান্ডার শিভা মুরুথে এবং ৬১-বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক মীর হাসান শাহরিয়ার মাহমুদ, ৫১-বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক এএফএম আজমল হাসান খান, বিজিবি রংপুর রিজিয়নের পরিচালক সাঈদ সালাউদ্দিন, বিজিবি রংপুর সেক্টরের অতিরিক্ত পরিচালক আশরাফুজ্জামান, ৬১-বিজিবি ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত পরিচালক মাহমুদ নুরুদ্দিন খান ও ৫১-বিজিবি ব্যাটালিয়নের সহকারী পরিচালক ওমর খসরু, পাটগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান রুহুল আমিন বাবুল ও পাটগ্রাম পৌরসভার মেয়র রাশেদুল ইসলাম সুইট।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –