• বৃহস্পতিবার   ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১৩ ১৪২৯

  • || ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

সর্বশেষ:
শেখ হাসিনার আজ জন্মদিন, জীবন যেন এক ফিনিক্স পাখির গল্প আজ থেকে করোনা টিকার বিশেষ ক্যাম্পেইন রংপুরে বাসের ধাক্কায় নিথর হলেন অটোযাত্রী ক্ষেতে কাজ করার সময় বজ্রপাত, প্রাণ গেল কৃষকের পঞ্চগড়ে নৌকাডুবি, ৩ দিন বাড়ল তদন্ত প্রতিবেদন জমার মেয়াদ

‘বাংলাদেশের মানুষ এখনও স্বল্পমূল্যে সবকিছু খাচ্ছে’

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৩১ জুলাই ২০২২  

বাংলাদেশের মানুষ এখনও স্বল্পমূল্যে সবকিছু খাচ্ছে মন্তব্য করে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান বলেছেন, ‘আপনারা হজযাত্রীদের জিজ্ঞেস করে দেখেন তারা একটা ডিম খেয়েছে ৫ রিয়াল দিয়ে, সে হিসেবে রিয়াল ১২৪ টাকা করে (প্রকৃত দাম এক রিয়াল ২৪-২৫ টাকা) সৌদিতে একটা ডিমের দাম প্রায় ৬০০ টাকা। আর আপনারা বাংলাদেশে ৬০০ টাকায় খাচ্ছেন কতগুলো ডিম, একবার চিন্তা করে দেখেছেন।’

রোববার (৩১ জুলাই) রাজধানীর বিয়াম অডিটোরিয়ামের মাল্টিপারপাস হলে ধর্ম মন্ত্রণালয় আয়োজিত ‘ধর্মীয় সম্প্রীতি ও সচেতনতা বৃদ্ধিতে ইনসেপশন’ ওয়ার্কশপে তিনি এসব কথা বলেন।

ফরিদুল হক খান বলেন, জিনিসের দাম কী বেড়েছে মানুষ তা বুঝতে পারে না। এখানে সামান্য দাম বেড়েছে, তাতেই কিন্তু মানুষের মনে অশান্তির সৃষ্টি হয়েছে। আজকে বাংলাদেশে পেট্রোলের দাম ৯০ টাকা আর লন্ডনে ৩৭০ টাকা। মানুষ তারপরও বুঝতে পারে না কিছু। আমরা যদি গমের রুটি না খাই তাহলে গম আমদানি করতে হবে না। এতে ফরেন কারেন্সি শর্ট পড়বে না। কিন্তু আমরা সবাই গমের রুটি খাওয়ার জন্য অস্থির হয়ে গেছি। ৩ মাস গমের রুটি না খেলে কী অসুবিধা হবে। ভোজ্যতেল কম খেলে কী অসুবিধা হয়। এ সব কিছুই তো আমাদের রাশিয়া ইউক্রেন থেকে আনতে হয়। রাশিয়া-ইউক্রেনে যুদ্ধের জন্য সারাবিশ্বে ধ্বস নেমে গেছে। এক কেজি চালের দাম ৫০০ টাকা এমন দেশও রয়েছে। 

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান বলেছেন, বর্তমানে বাঙালি মায়ের পেটে বাস করছে। কিন্তু বাঙালি বোঝে না, মা তাদের জন্য কতটুকু করছে। সরকারের আয়ের টাকা ভর্তুকি দিতেই শেষ। তারপরও বাংলাদেশের মানুষকে সুখে রেখেছে সরকার। কিন্তু মানুষ বোঝে না।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতার সময় বিপক্ষ জোট ছিল। ৪ দলীয় জোট সরকারের সময়, বিএনপি-জামায়াতের সময় একই দিনে একই সময়ে ৬৩ জেলার ৫০০টি জায়গায় বোমা হামলা হয়েছিল। শুধু তাই না, রাষ্ট্রীয় মসনদে যারা স্বাধীনতার বিরোধী শক্তি ছিল তাদের ডেকে এনে মন্ত্রীত্ব দেওয়া হয়েছিল। এগুলো আমাদের সবার মাথায় রাখতে হবে। স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি বাংলাদেশেই বলেন আর আন্তর্জাতিকভাবেই বলেন, কাজ করছে।

ওয়ার্কশপে আরও উপস্থিত ছিলেন হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান নারায়ণ চন্দ্র চন্দ, বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান মিজ আরমা দত্ত, খ্রিস্টান ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান জুয়েল আরেং, ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মু. আ. আউয়াল হাওলাদার, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) ড. মো. মুশফিকুর রহমান এবং ধর্মীয় সম্প্রীতি ও সচেতনতা বৃদ্ধিকরণ প্রকল্পের পরিচালক আব্দুল্লাহ-আল-শাহীন।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –