ব্রেকিং:
রংপুরের নবীগঞ্জ এলাকায় বাসচাপায় অটোরিকশার চারযাত্রী নিহত হয়েছেন। রোববার সন্ধ্যায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
  • সোমবার   ২৪ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ১০ ১৪২৮

  • || ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

সর্বশেষ:
অপরাধ দমনে নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে পুলিশ: প্রধানমন্ত্রী সততা ও নিষ্ঠার সাথে জনগণের সেবা নিশ্চিত করুন: রাষ্ট্রপতি আগামী ৫ বছরে বিশ্বের ৫০টি দেশে ডিজিটাল যন্ত্র রফতানি হবে দেশে শিল্পায়ন বাড়ানোর চেষ্টা চলছে: শিল্পমন্ত্রী কুড়িগ্রাম সদরে সোনালী ব্যাংক শাখার কর্মকর্তার মৃত্যু

ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন গল্প নয় সত্য

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৫ ডিসেম্বর ২০২১  

রংপুরে ডিজিটাল সেন্টারের ১১ বছর পূর্তি উদযাপন করা হয়েছে। একই সঙ্গে উদ্বোধন হয়েছে ডিজিটাল বাংলাদেশ ই-সেবা ক্যাম্পেইন কার্যক্রম। রোববার (৫ ডিসেম্বর) দুপুরে রংপুর টাউন হল মিলনায়তনে বর্ষপূতি উদযাপন অনুষ্ঠানের আয়োজন করে রংপুর জেলা প্রশাসন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ব্ক্তব্যে রংপুরের জেলা প্রশাসক আসিব আহসান বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্বাচনী ইশতেহার হিসেবে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার দৃঢ় অঙ্গীকারে ‘ভিশন টুয়েন্টি টুয়েন্টি ওয়ান’ বা ‘রূপকল্প ২০২১’ ঘোষণা করেছিলেন।

সেই ইশতেহারে বলা হয়, ২০২১ সালে স্বাধীনতার ৫০ বছরে বাংলাদেশ ‘ডিজিটাল বাংলাদেশে’ পরিণত হবে। একটি উন্নত দেশ, সমৃদ্ধ সমাজ, একটি ডিজিটাল যুগের জনগোষ্ঠী, রূপান্তরিত উৎপাদন ব্যবস্থা, নতুন জ্ঞানভিত্তিক অর্থনীতি-সব মিলিয়ে একটি জ্ঞানভিত্তিক সমাজ গঠনের স্বপ্নই দেখিয়েছেন শেখ হাসিনা। ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন এখন কোনো গল্প নয়, এটা সত্য এবং দৃশ্যমান বাস্তব।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) এ ডব্লিউ এম রায়হান শাহের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন রংপুরের পুলিশ সুপার ফেরদৌস আলী চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক জেলা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোছাদ্দেক হোসেন বাবলু, রংপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহবুব রহমান হাবু প্রমুখ।
 
এ সময় বক্তারা বলেন, আমরা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির যুগে বসবাস করছি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আন্তরিক প্রচেষ্টায় মাত্র ১০ বছরের মধ্যে সব কিছুতেই প্রযুক্তি নির্ভর ডিজিটাল হয়ে উঠেছে বাংলাদেশ। মানুষের চিন্তা-ভাবনা ও চাহিদায় ব্যাপক পরিবর্তন এনেছে ডিজিটাল কমিউনিকেশন। দেশে ফেসবুকভিত্তিক বিভিন্ন ব্যবসা গড়ে উঠেছে। ডিজিটাল মার্কেটিং ব্যবস্থায় ঘরে বসে নিজের ইচ্ছেমতো খুব সহজে জিনিসপত্র কেনাবেচা করা যায়। ব্যবসা-বাণিজ্য থেকে শুরু করে চাকরি-পড়াশোনা হচ্ছে ডিজিটাল পদ্ধতিতে।

দেশের প্রান্তিক পর্যায়ে দ্রত সময়ে নাগরিক সেবার সুযোগ তৈরির ক্ষেত্রে এক উচ্চতায় পৌঁছে গেছে দেশের আট হাজারের অধিক ডিজিটাল সেন্টার। বর্তমানে প্রাতিষ্ঠানিক রুপ পাওয়া এসব ডিজিটাল সেন্টারের মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনের কার্যক্রম বহুগুণে এগিয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন বক্তারা।

অনুষ্ঠান আয়োজনে এসপায়ার টু ইনোভেট (এটুআই), তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ সহযোগিতা করেন। আলোচনা পর্ব শেষে কেক কেটে ডিজিটাল বাংলাদেশ ই-সেবা ক্যাম্পেইন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন অতিথিবৃন্দ।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –