• বুধবার   ২৯ জুন ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৬ ১৪২৯

  • || ২৮ জ্বিলকদ ১৪৪৩

সর্বশেষ:
হাইটেক পার্ক স্থাপন প্রকল্পের আওতায় কর্মসংস্থান হবে ৩ হাজার রংপুরে ভাষাসৈনিক মতিউর রহমান বসনীয়া আর নেই করোনা রোধে দেশের শিশুদেরও টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে সরকার মিঠাপুকুরে প্রশাসনের উদ্যোগে ৩০ বছর পর লিজ মুক্ত শালমারা নদী ৫০ বিলিয়ন ডলার ছুঁয়েছে বাংলাদেশের রফতানি

হাতীবান্ধায় পুলিশ জাদুঘরের উদ্বোধন ২২ জুন

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২১ জুন ২০২২  

২২ জুন লালমনিরহাট জেলায় বাংলাদেশ পুলিশ জাদুঘরের উদ্বোধন করা হবে। উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশ পুলিশের আইজিপি ড. বেনজির আহম্মেদ। এটি দেশের প্রথম পুলিশ জাদুঘর। এ জাদুঘরটি লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা থানার পুরাতন ভবনে স্থাপন করা হচ্ছে। জাদুঘরটি উদ্বোধন হলে পাল্টে যাবে এলাকার দৃশ্যপট। জাদুঘর দেখতে আসা দর্শনার্থীদের আগমন ঘটলে এ এলাকায়  প্রসারিত হবে ব্যবসা বাণিজ্য, আলোকিত হবে মানুষজনের জীবনমান উন্নয়ন।

জানা গেছে, লালমনিরহাট জেলার ২৩তম পুলিশ সুপার হিসেবে গত ১৫ জানুয়ারি ২০২০ তারিখে যোগদান করেন আবিদা সুলতানা বিপিএম, পিপিএম। যোগদানের পর হাতীবান্ধা থানা পরিদর্শনে এলে থানা প্রাঙ্গণে থাকা পুরাতন ঐতিহ্যবাহী  এই ভবনটিকে বাংলাদেশের পুলিশের ইতিহাস ও ঐতিহ্য এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাস সংরক্ষণের কাজে লাগানোর চিন্তা করেন। এ সংক্রান্তে সুনির্দিষ্ট ও বিস্তারিত পরিকল্পনা গ্রহণে সহযোগিতা করেন লালমনিরহাট সহকারী পুলিশ সুপার বি-সার্কেল তাপস সরকার, তৎকালীন হাতীবান্ধা থানা ওসি ওমর ফারুক ও তার বদলীর পর গত ২৬ আগষ্ট২০২০ তারিখে দায়িত্ব গ্রহণ করেন ওসি এরশাদুল আলম। এরপর রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য বিপিএম এবং বাংলাদেশ পুলিশের আইজিপি বেনজির আহমেদ বিপিএম(বার) সম্মতিক্রমে 'বাংলাদেশ পুলিশ জাদুঘর, লালমনিরহাট' প্রতিষ্ঠার কার্যক্রম শুরু হয় গেল বছরের ৩১ জানুয়ারি। পরবর্তীতে লালমনিরহাট জেলা পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানার নিবিড় তত্ত্বাবধানে জাদুঘরটি প্রতিষ্ঠিত হয়। 

জাদুঘরটিতে পুলিশের ইতিহাস, ঐতিহ্য এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাস সংরক্ষণ করা হয়েছে। এ সংগ্রহশালায় ব্রিটিশ পুলিশ থেকে শুরু করে বাংলাদেশ পুলিশ পর্যন্ত তাদের পোশাক, যুদ্ধ সরঞ্জাম, অস্ত্র, পুলিশের পদবী, রণকৌশল সম্পর্কে ধারণা পাবেন দর্শনার্থীরা। এছাড়াও পাশের একটি ভবনে শিশু কর্নার স্থাপন করা হয়েছে। যেখানে আগত দর্শনার্থী ও তাদের সন্তানরা আনন্দ ও বিনোদন গ্রহণ করবেন। এ জাদুঘর ও শিশু কর্নারটি সর্বসাধারণের প্রবেশের জন্য উন্মুক্ত রাখা হবে।

হাতীবান্ধা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের আহবায়ক রোকনুজ্জামান সোহেল বলেন, দেশের প্রথম বাংলাদেশ পুলিশ মুক্তিযোদ্ধা জাদুঘর। স্বাধীনতা সংগ্রামে পুলিশ বাহিনীর কীর্তি স্মারক সংরক্ষণে এ জাদুঘর প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এটি রাজারবাগ পুলিশ লাইনে অবস্থিত। লালমনিরহাটে হল দেশের প্রথম পুলিশ জাদুঘর।এ জাদুঘর প্রতিষ্ঠার উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই।

হাতীবান্ধা এসএস সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রেজাউল করিম প্রধান বলেন, বাংলাদেশে প্রথম পুলিশ জাদুঘর লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলায় উদ্বোধন হতে যাচ্ছে। ব্রিটিশ আমলে নির্মিত থানা ভবনটি সংস্কার করে এই জাদুঘর প্রতিষ্ঠিত। ব্রিটিশ পুলিশ থেকে শুরু করে বাংলাদেশ পুলিশ পর্যন্ত পুলিশের ঐতিহ্যগাঁথা নির্দেশনসমূহ জাদুঘরকে সমৃদ্ধ করেছে। এই ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠানটি সম্পর্কে আদ্যপ্রান্ত জানা যাবে জাদুঘরের একনজর পরিদর্শনে। হাতীবান্ধাবাসী দেশের ইতিহাসের এরকম একটি স্থাপনা পেয়ে ভাগ্যবান বোধ করছে।

জাদুঘরটির উদ্যোক্তা লালমনিরহাট জেলা পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা বলেন, এই জাদুঘরে পুলিশের বিভিন্ন স্মরক ও তথ্য সকলের জন্য প্রদর্শন করা হবে। আগামী ২২ জুন এ জাদুঘরটি উদ্বোধন করবেন পুলিশের আইজিপি। 

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –