• বুধবার   ০৭ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২২ ১৪২৯

  • || ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

তীরে এসে তরী ডুবলো বাংলাদেশের

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২ নভেম্বর ২০২২  

তীরে এসে তরী ডুবলো বাংলাদেশের                      
ভারতের দেওয়া লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে বাংলাদেশের শুরুটা ছিল দুর্দান্ত। কে জানে, হয়তো বৃষ্টির বাঁধায় খেলা বন্ধ না হলে এভাবেই চলতে থাকতো সব। কিন্তু বেরসিক বৃষ্টি এসে ছন্দ নিয়ে গেল। খেই হারালো টাইগাররা। জয়ের স্বপ্ন দেখা বাংলাদেশ মাঠ ছাড়ল পরাজয়ের তিক্ত স্বাদ নিয়ে।

অ্যাডিলেড ওভালে টি-২০ বিশ্বকাপে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে ডি/এল মেথডে ভারতের কাছে ৫ রানে হেরেছে বাংলাদেশ। আগে ব্যাট করে ২০ ওভারে ছয় উইকেটে ১৮৪ রান সংগ্রহ করেছিল ভারত। জবাবে নির্ধারিত ১৬ ওভারে ১৪৫ রানে থামে বাংলাদেশের ইনিংস।

বাংলাদেশের হয়ে ইনিংস উদ্বোধনে নামেন লিটন দাস ও নাজমুল হোসেন শান্ত। একপ্রান্তে ভারতীয় বোলারদের বল সামলাতে হিমশিম খাচ্ছিলেন শান্ত। কিন্তু অন্যপ্রান্তে আজ রুদ্রমূর্তিতে নেমেছিলেন লিটন।

শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলতে থাকেন লিটন। ২১ বলে হাফ সেঞ্চুরির দেখা পান তিনি। চলতি বিশ্বকাপে যা দ্বিতীয় দ্রুততম। লিটন ফিফটি পাওয়ার পরই বৃষ্টি নামে। এ সময় তিনি ২৬ বলে ৫৯ রানে অপরাজিত ছিলেন। অন্যপ্রান্তে শান্তর সংগ্রহ ছিল ১৬ বলে ৭ রান।

বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হওয়ার সময় বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল ৭ ওভারে বিনা উইকেটে ৬৬ রান। নতুন করে খেলা শুরু হলে বাংলাদেশের লক্ষ্য দাঁড়ায় ১৬ ওভারে ১৫১ রান। অর্থাৎ বাকি থাকা ৫৪ বলে টাইগারদের করতে হতো ৮৫ রান।

নতুন করে মাঠে নামার পর খেই হারায় বাংলাদেশ। প্রথমেই রান আউটের শিকার হন লিটন। ৬০ রানে তিনি বিদায় নেয়ার পর শান্ত ২১, সাকিব ১৩ ও আফিফ ৩ রানে আউট হন।

ইয়াসির আলী ১ ও মোসাদ্দেক হোসেন ৬ রানে ফিরলে ম্যাচ অনেকটাই ভারতের দিকে হেলে পড়ে। বাংলাদেশের হয়ে শেষ চেষ্টা করেন নুরুল হাসান সোহান ও তাসকিন আহমেদ। কিন্তু তাদের ২৫ ও ১৫ রানের অপরাজিত ইনিংস শুধু হারের ব্যবধানটাই কমিয়েছে।

আজকের হারে বাংলাদেশের সেমিফাইনালে খেলার স্বপ্ন কার্যত শেষ। ভারতের হয়ে আর্শদীপ সিং ও হার্দিক পান্ডিয়া দুটি এবং মোহাম্মদ শামি একটি করে উইকেট শিকার করেন। 

এর আগে টস জিতে ভারতকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। ম্যাচে এক পরিবর্তন নিয়ে খেলছে বাংলাদেশ। যেখানে বাদ পড়েছেন সৌম্য সরকার, দলে ঢুকেছেন শরিফুল ইসলাম।

ভারতের হয়ে ইনিংস উদ্বোধনে নামেন কেএল রাহুল ও রোহিত শর্মা। ইনিংসের তৃতীয় ওভারেই তাসকিন আহমেদের বলে ক্যাচ তুলে দিয়েছিলেন রোহিত। তবে সেটি তালুবন্দী করতে পারেননি হাসান মাহমুদ।

অবশ্য পরের ওভারে আক্রমণে এসেই প্রায়শ্চিত্ত করেন হাসান। রোহিতকে এবার ইয়াসির আলীর তালুবন্দী করেন তিনি। ভারত অধিনায়ক ফেরেন মাত্র ২ রানে। তবে এরপর রাহুল ও বিরাট কোহলি মিলে দলকে ভালোই এগিয়ে নিতে থাকেন।

ইনিংসের দশম ওভারে অর্ধশতক পূরণ করেন রাহুল। ৩১ বলে ফিফটির দেখা পাওয়ার পরের ডেলিভারিতেই আউট হন তিনি। রাহুলকে ফিরিয়ে বাংলাদেশ শিবিরে স্বস্তি ফেরান সাকিব। সূর্যকুমার যাদবকেও ৩০ রানে ফেরান টাইগার অলরাউন্ডার।

একপ্রান্ত আগলে রেখে চলমা বিশ্বকাপে নিজের তৃতীয় ফিফটি পূরণ করেন কোহলি। শেষ পর্যন্ত তিনি অপরাজিত থাকেন ৬৪ রানে। বাংলাদেশের হয়ে হাসান মাহমুদ তিনটি ও সাকিব দুটি উইকেট নেন।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –