• শনিবার ১৫ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ১ ১৪৩১

  • || ০৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

কালীগঞ্জে জামিনে বেরিয়ে বাদীর কান ছিঁড়ে নিলেন মাদক ব্যবসায়ী

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১২ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জে শহিদুল ইসলাম ওরফে মিলন নামে এক মাদক ব্যবসায়ী জামিনে বেরিয়ে সুমন নামে এক ব্যক্তির কান ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মাদক ব্যবসায়ীকে ধরিয়ে দেওয়া সন্দেহে সুমনকে মারধর করেন মিলন। পরে মিলনকে পুলিশে ধরিয়ে নিয়ে যায়।

রোববার রাতে উপজেলার চন্দ্রপুর ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত সুমন এখন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

জানা যায়, মাদক ব্যবসায়ীকে ধরিয়ে দেওয়ার সন্দেহে মিলন ও তার লোকজন গত ২৫ জুলাই রাতে তুলে নিয়ে গিয়ে অপর এক মাদক ব্যবসায়ীর বাড়িতে সুমন মিয়ার ওপর নির্যাতন চালান। তাকে নগ্ন করে যৌনাঙ্গে দুই লিটার পানিভর্তি একটি বোতল ঝুলিয়ে কান ধরে উঠবস করানো হয়। সেইসঙ্গে মারধরের ভিডিও ধারণ করেন মাদক ব্যবসায়ীরা।

পরে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে মিলনসহ চারজনের নাম উল্লেখ এবং কয়েকজন অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিকে আসামি করে কালীগঞ্জ থানায় মামলা করেন সুমন মিয়া। এর কয়েকদিন পর চারজনকে আটক করে র‌্যাব। সম্প্রতি উচ্চ আদালত থেকে জামিনে বের হন তারা।

এরই ধারাবাহিকতায় রোববার সন্ধ্যায় বাড়ির পাশে মিলনসহ কয়েকজন সুমন মিয়ার পথরোধ করে মারধর করতে থাকেন। একপর্যায়ে মিলন কামড়ে সুমনের কানের একাংশ ছিঁড়ে ফেলে তাকে শ্বাসরোধে হত্যার চেষ্টা করেন। পরে সুমনের চিৎকারে কয়েকজন ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।

এদিকে ঘটনার দায় এড়াতে নিজেই নির্যাতনের শিকার যুবকের হামলার শিকার হয়েছেন- এমন দাবি করে রোববার রাতে হাসপাতালে ভর্তি হন মিলন।

নির্যাতনের শিকার সুমন বলেন, জামিনে এসে মিলন ও তার লোকজন আমাকে হত্যার হুমকিসহ নানাভাবে ভয়ভীতি দেখান। এরই জেরে রোববার আমাকে মেরে ফেলার চেষ্টা করেন। যদিও আমি প্রাণে বেঁচে যাই। পরে পুলিশ গিয়ে আমাকে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

মঙ্গলবার কালীগঞ্জ থানার ওসি ইমতিয়াজ কবির বলেন, ঘটনা শুনেছি। দু’পক্ষই এখন হাসপাতালে ভর্তি। তবে কোনো পক্ষের লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –