• রোববার ১৪ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • বৈশাখ ১ ১৪৩০

  • || ০৪ শাওয়াল ১৪৪৫

এ যেন এক অন্যরকম মানুষের মাঝে নিজেকে বিলিয়ে দেওয়া

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১০ এপ্রিল ২০২৩  

 
এ যেন এক অন্যরকম মানুষের মাঝে নিজেকে বিলিয়ে দেওয়ার শিক্ষা। তারা অসহায়, দরিদ্র মানুষ। গায়ে ছেঁড়া জামা, কেউ বাক প্রতিবন্ধী, কেউবা চোখেও দেখে না। ওইসব মানুষকে সঙ্গে নিয়ে নিজের অফিসে বসে ইফতার করেছেন লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ থানার ওসি এটিএম গোলাম রসূল।

সোমবার (১০ এপ্রিল) সন্ধ্যায় কালীগঞ্জ থানায় বসে পথচারী, অসহায়, দরিদ্র ও মানসিক ভারসাম্যহীন মানুষের সঙ্গে ইফতার করে তার দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করেছেন তিনি। এ সময় নিজের বেতনের টাকা থেকে ঈদ বোনাস হিসেবে তাদেরকে কিছু নগদ টাকাও দেন।

এদিকে, ইফতার করা নিয়ে অনেকেই প্রশংসা করছেন। তারা বলছেন, এভাবে গরিব মানুষের পাশে তারা থাকলে পুলিশের প্রতি মানুষের আস্থা বাড়বে।

ইফতারে অংশ নেয়া ব্যক্তিরা বলেন, এভাবে ইফতার করা আমাদের কখনো সৌভাগ্য হয়নি। ওসি সাহেব আমাদের এভাবে যত্ন করে ইফতার করাবেন ভাবতেই পারছি না। আল্লাহ ওনাকে সুস্থতা দান করুক। উনি যেন সব সময় সুস্থ থাকেন।

তারা আরো বলেন, খাওয়া শেষে ওসি সাহেব আমাদের নগদ টাকা দিয়েছেন। যেটি দিয়ে নতুন জামাসহ অনেক কিছু কিনতে পারবো।

কালীগঞ্জ থানার ওসি এটিএম গোলাম রসুল ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, প্রতিদিনই চোর, ডাকাতসহ বিভিন্ন অপরাধীদের ধরতে মাঠে কাজ করে পুলিশ। কখনো রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে ইফতার করেছি। কখনো গাড়িতেই পানির বোতল দিয়ে রোজা খুলে কিছু খেয়েছি। অনেক সময় মন্ত্রী-এমপিদের নিরাপত্তার কাজের ক্ষেত্রে ভালো খাবার খাওয়া হয়। কিন্তু অসহায় মানুষের সঙ্গে অনেকে ইফতার করতে চায় না। তাই পথচারী, অসহায়, দরিদ্র ও খেটে খাওয়া মানুষকে ইফতার করেছি।

তিনি আরো বলেন, পুলিশ কখনো মানুষকে খুশি রাখতে পারে না। তাই অসহায় মানুষগুলোর সঙ্গে বসে ইফতার করেছি। এ সময় আমার বেতন থেকে প্রত্যেককে ২০০ টাকা করে ঈদ বোনাস দিয়েছি। তা পেয়ে তারা এতটা খুশি হয়েছে এটি বলে শেষ করা যাবে না। তাদের সঙ্গে ইফতার করে মনে হয়েছে আমি হাজার হাজার মানুষের সঙ্গে ইফতার করেছি।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –