• বৃহস্পতিবার   ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১৩ ১৪২৯

  • || ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

সর্বশেষ:
শেখ হাসিনার আজ জন্মদিন, জীবন যেন এক ফিনিক্স পাখির গল্প আজ থেকে করোনা টিকার বিশেষ ক্যাম্পেইন রংপুরে বাসের ধাক্কায় নিথর হলেন অটোযাত্রী ক্ষেতে কাজ করার সময় বজ্রপাত, প্রাণ গেল কৃষকের পঞ্চগড়ে নৌকাডুবি, ৩ দিন বাড়ল তদন্ত প্রতিবেদন জমার মেয়াদ

ফূর্তি করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে অটোরিকশা ভাড়া করেন ছিনতাইকারীরা

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২  

ফূর্তি করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে অটোরিকশা ভাড়া করেন ছিনতাইকারীরা          
অটোরিকশা ছিনতাই করতেই রংপুরের সুলতানকে লালমনিরহাটের কালীগঞ্জে গলাকেটে হত্যা করেছে দুই ছিনতাইকারী। গতকাল বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে গ্রেপ্তার ছিনতাইকারীদের স্বীকারোক্তির বরাত দিয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান লালমনিরহাটের পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম।

মৃত অটোরিকশা চালক সুলতান হোসেন রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার দর্জি পাড়া গ্রামের আব্দুল গফুর মিয়ার ছেলে। এর আগে মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টায় উপজেলার কাকিনা ইউনিয়নের ইশোরকোল এলাকার তিস্তা নদীর একটি শাখা স্রোতধারা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, কালীগঞ্জ উপজেলার কাকিনা ইউনিয়নের তেলীপাড়া গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে মমিনুর ইসলাম (২৯) ও রংপুরের তাজহাট আশরতপুর ঈদগা পাড়া এলাকার মৃত বাবুল চৌধুরীর ছেলে সুজন চৌধুরী (৪০)।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম বলেন, আসামিরা ছিনতাই করতে দীর্ঘদিন ধরে পরিকল্পনা করে সুলতানের অটোরিকশা ভাড়া করেন। অটোরিকশায় একটি মেয়েকে নিয়ে ফূর্তি করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে সুলতানের অটোরিকশা ভাড়া করেন ছিনতাইকারী চক্র। তাই সুলতানের অটোরিকশায় লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার কাকিনা ইউনিয়নের ইশোরকোল গ্রামে আসেন তারা। মেয়েটি আসতে বিলম্ব হবে অজুহাতে একজন আত্মীয়র বাড়িতে অটোরিকশাটি রাখতে বাধ্য করেন তারা।

পরে অটোচালক সুলতানকে নিয়ে ইশোরকোল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠের নির্জন জায়গায় নিয়ে যৌনউত্তেজক ওষুধের সঙ্গে ঘুমের ওষুধ খাওয়ানো হয়। এরপর অচেতন সুলতানকে একজন পা ধরে অপরজন গলাকেটে হত্যা করে পাশের তিস্তা নদীর একটি জলধারায় ফেলে পালিয়ে যায় ছিনতাইকারী চক্রটি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশের কাছে হত্যার কথা স্বীকার করেছে তারা।

পরদিন স্থানীয়দের খবরে কালীগঞ্জ থানা পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় মৃত সুলতানের বাবা আব্দুল গফুর মিয়া বাদী হয়ে ওই দিন রাতে অজ্ঞাতদের বিরুদ্ধে কালীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে প্রযুক্তি ব্যবহার করে র‍্যাবের সহায়তায় জেলা পুলিশ প্রথমে সুজনকে গ্রেপ্তার করে। পরে তার দেওয়া তথ্যমতে সোমবার মমিনুরকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করে।

গ্রেপ্তারকৃতরা আদালতে দেওয়া জবানবন্দিতে ঘটনার বর্ণনা দিয়ে সত্যতা স্বীকার করেন বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –