ব্রেকিং:
রংপুরের নবীগঞ্জ এলাকায় বাসচাপায় অটোরিকশার চারযাত্রী নিহত হয়েছেন। রোববার সন্ধ্যায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
  • বৃহস্পতিবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ১৪ ১৪২৮

  • || ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

সর্বশেষ:
বিশ্বসেরা স্থাপত্যের পুরস্কার জিতল বাংলাদেশের হাসপাতাল অপ্রতিরোধ্য গতিতে উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ: প্রধানমন্ত্রী পুলিশের সক্ষমতা বাড়াতে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স সংযোজন হচ্ছে রৌমারীতে স্কুলের দেয়াল ধসে শ্রমিকের মৃত্যু রংপুরে চাঞ্চল্যকর জুয়েল হত্যা মামলায় যুবকের মৃত্যুদণ্ড

হাতীবান্ধায় একই চিতায় জ্বললেন স্বামী-স্ত্রী 

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১০ জানুয়ারি ২০২২  

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় পুলিশ হেফাজতে মারা যাওয়া স্বামীর চিতায় স্ত্রীকেও দাহ করা হয়েছে। শনিবার (৮ জানুয়ারি) ময়নাতদন্ত শেষে রাত ১১টার দিকে পুলিশের উপস্থিতিতে প্রথমে স্বামীর পরে স্ত্রীর মরদেহ দাহ করা হয়। তারা হলেন- হিমাংশু বর্মণ ও তার স্ত্রী সাবিত্রী রানী। হিমাংশু ওই এলাকার বিশ্বেশ্বর বর্মণের ছেলে।

স্বজন ও স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার পূর্ব কাদমা গ্রামের একটি সড়কের পাশ থেকে সাবিত্রীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সেখান থেকে দুপুর ১২টার দিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার স্বামী হিমাংশু বর্মণ ও তার কন্যা প্রিয়ংকাকে থানায় নেয় পুলিশ। পরে বিকেলে হিমাংশুকে পুলিশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানকার চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশের দাবি, হিমাংশু থানার একটি কক্ষে গলায় ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের তার পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

তবে হিমাংশুর বাবা বিশ্বেশ্বর বর্মণের দাবি, পুলিশ তার ছেলের কাছে এক লাখ টাকা চেয়েছিল। সে টাকা দিতে না পারায় তাকে নির্যাতন করে মেরে ফেলা হয়েছে।

হিমাংশুর মেয়ে প্রিয়ংকা জানান, থানায় বাবার সঙ্গে একবারও দেখা করতে দেয়নি পুলিশ। এমনকি ওইদিন বিকেলে থানায় বাবা মারা গেলেও আমাকে জানানো হয়েছে অনেক রাতে। 

হাতীবান্ধা থানার ওসি এরশাদুল আলম বলেন, তার পরিবারের কাছে কোনো টাকা চাওয়া হয়নি। তিনি তার পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

এ বিষয়ে পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা বলেন, থানায় মৃত্যুর ঘটনায় তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। তাদেরকে তিন কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –