• সোমবার   ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ১১ ১৪২৮

  • || ১৭ সফর ১৪৪৩

সর্বশেষ:
প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে দেওয়া হবে ৮০ লাখ টিকা আবারও জ্বালাও পোড়াও করলে জবাব দিতে প্রস্তুত আ.লীগ করোনায় চার মাসে সর্বনিম্ন মৃত্যু মাদককারবারির ছুরিকাঘাতে নিহত এএসআই’র দাফন সম্পন্ন হরিপুরে কৃষকের মাঝে কৃষি উপকরণ বিতরণ

মায়ের জানাজার নামাজ নিজেই পড়ালেন সমাজকল্যাণমন্ত্রী

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৩ আগস্ট ২০২১  

সমাজকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদের মা শামসুন্নাহার বেগম (৯০) মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তার মায়ের জানাজার নামাজ তিনি নিজেই পড়ান। এ সময় জানাজায় বিভিন্ন শ্রেণির লাখো মুসল্লির ঢল নামে।

গতকাল বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট) বিকেলে গ্রামের বাড়ি লালমনি রহাটের কালীগঞ্জ করিম উদ্দিন সরকারি পাবলিক ডিগ্রি কলেজ মাঠে শামসুন্নাহার বেগমের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পরে বিকেলে পারিবারিক কবরস্থানে স্বামী বীর মুক্তিযোদ্ধা করিম উদ্দিন আহম্মেদের কবরের পাশে তাকে সমাহিত করা হয়।

এদিকে বৃহস্পতিবার ভোর ৬টার দিকে শামসুন্নাহারের মরদেহ ঢাকা থেকে কালীগঞ্জে উপজেলায় তার নিজ বাড়ি আনা হয়। এ সময় বাড়িতে স্বজনরা কান্নায় ভেঙে পড়েন। সমবেদনা জানাতে সর্বস্তরের মানুষ ভিড় করেন।

এর আগে বুধবার (১১ আগস্ট) দুপুর ১২টায় রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন শামসুন্নাহার বেগম। সেখানে প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে সমাজকল্যাণমন্ত্রীসহ শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান মন্ত্রিসভার সদস্যরা।

শামসুন্নাহার বেগম (৯০) মুক্তিযোদ্ধা সংগঠক প্রয়াত করিম উদ্দিন আহমেদের স্ত্রী। তার ৬ ছেলে ও ৭ মেয়েসহ অনেক গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তার বড় বড় ছেলে সমাজকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, কিছুদিন আগে তিনি বাড়িতে অসুস্থ হয়ে যান। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজে নিয়ে ভর্তি করালে সেখানে তার অবস্থার অবনতি ঘটে। ওইদিন ঢাকায় সিএমএইচে নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

তার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শোক জানিয়েছেন। এছাড়াও সমাজকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদের মা শামসুন্নাহার বেগমের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন মন্ত্রিসভার সদস্যরা। পৃথক শোকবার্তায় তারা শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

জানাজায় সমাজকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ, তার পরিবারের সদস্য এবং আত্মীয়স্বজন ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রংপুর বিভাগীয় কমিশনার আব্দুল হক ভূঁইয়া, রংপুর বিভাগীয় সমাজসেবা অফিসার, জেলা প্রশাসক আবু জাফর, জেলা পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল মান্নান প্রমুখ।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –