• মঙ্গলবার   ০৩ আগস্ট ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ১৮ ১৪২৮

  • || ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

সর্বশেষ:
টিকার আওতায় ১ কোটি ৩৪ লাখ মানুষ, অপেক্ষায় দেড় কোটি ২ আগস্ট ১৯৭১: ‘মুজিবের ফাঁসি হলে একই দড়িতে ঝুলবে পাকিস্তান’ প্রণোদনার জন্য স্মার্ট কার্ড পাবেন দেড় কোটির বেশি কৃষক বঙ্গবন্ধু হত্যার ষড়যন্ত্রকারীদের মুখোশ উন্মোচনের প্রত্যাশা ভালোবাসার বৃষ্টিতে ভিজলো ‘একটি দেশের জন্য গান’

হাতীবান্ধায় নামাজ পড়তে গিয়ে ভ্যান হারিয়ে দিশেহারা জোবেদ

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১১ জুলাই ২০২১  

জুমার নামাজ পড়তে গিয়ে ব্যাটারিচালিত ভ্যানটি চুরি হওয়ায় দিশেহারা হয়ে পড়েছেন জোবেদ আলী (৪৮)। আয়ের শেষ সম্বলটুকু হারিয়ে চলমান বিধিনিষেধে পরিবার নিয়ে মানবেতর দিন কাটছে তার।

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার বড়খাতা ইউনিয়নের পূর্ব সারডুবী গ্রামের ভ্যান চালক জোবেদ আলী (৪৮)। স্ত্রী ও তিন মেয়েকে নিয়ে তার অভাবের সংসার। গত বছরে অনেক কষ্টে বড় মেয়েকে বিয়ে দেন। এক মেয়ে মায়া আক্তার পঞ্চম শ্রেণি ও জুই চতুর্থ শ্রেণিতে পড়াশোনা করছে। জায়গা জমি বলতে বাড়িভিটেসহ মাত্র ২০ শতাংশ জমি। বড় মেয়ের বিয়ে দেয়ার সময় ১৫ শতাংশ জমি বন্ধক রাখেন জাবেদ আলী।

সংসারের কিছুটা অভাব দূর করতে দুমাস আগে ‘আশা’ নামে একটি এনজিও থেকে ৫০ হাজার টাকা ঋণ নিয়ে ব্যাটারিচালিত ভ্যানটি কিনেন জোবেদ। সেই ঋণের টাকাও শোধ হয়নি। প্রতিদিন ভ্যান চালিয়ে যা আয় হয় তা দিয়ে দুবেলা খাবার জোটে পরিবারের। ভ্যানটি চুরি যাওয়ায় পরিবারটি ঘরে চুলাও জ্বলেনি।

স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার দুপুরে উপজেলার বড়খাতা দোলাপাড়া কেরামতিয়া বড় জামে মসজিদে যাত্রী নামিয়ে দিয়ে মাঠে ভ্যানটি রেখে জুমার নামাজ পড়তে যান জোবেদ আলী। নামাজ শেষে এসে দেখেন ভ্যানটি নেই। অনেক খুঁজেও ভ্যানটি না পেয়ে হাউমাউ করে কাঁদতে থাকেন।

ভ্যানচালক জোবেদ আলী বলেন, ‘ভ্যানটি রেখে নামাজে যাই। এসে দেখি ভ্যান নাই। ভ্যানটা হারিয়ে বর্তমান আমি পঙ্গু। এদিকে স্ত্রীও অসুস্থ। এই গাড়িটাই আমার একমাত্র আয়ের পথ ছিল। সব হারিয়ে আমি নিঃস্ব।’

তার স্ত্রী জাবেদা বেগম বলেন, ‘আমার স্বামী নামাজ পড়তে গেলে ভ্যানটি চুরি হয়। এই করোনায় কাজকর্ম নাই। ঘরের চুলাও জ্বালাতে পারছি না। এখন বাচ্চাদের নিয়ে কী খাব কোনো উপায় পাচ্ছি না।’

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –