• মঙ্গলবার   ০৩ আগস্ট ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ১৮ ১৪২৮

  • || ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

সর্বশেষ:
টিকার আওতায় ১ কোটি ৩৪ লাখ মানুষ, অপেক্ষায় দেড় কোটি ২ আগস্ট ১৯৭১: ‘মুজিবের ফাঁসি হলে একই দড়িতে ঝুলবে পাকিস্তান’ প্রণোদনার জন্য স্মার্ট কার্ড পাবেন দেড় কোটির বেশি কৃষক বঙ্গবন্ধু হত্যার ষড়যন্ত্রকারীদের মুখোশ উন্মোচনের প্রত্যাশা ভালোবাসার বৃষ্টিতে ভিজলো ‘একটি দেশের জন্য গান’

সীমান্তে মানুষ হত্যা শূন্যে নামিয়ে আনা হবে: বিএসএফ মহাপরিচালক   

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১০ জুলাই ২০২১  

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বহুল আলোচিত তিনবিঘা করিডর সীমান্ত সহ বিভিন্ন সীমান্ত পরিদর্শন করেছেন ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর মহাপরিচালক(ডিজি) রাজেশ আস্থানা।

শনিবার (১০ জুলাই) দুপুর ২টায় লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বহুল আলোচিত তিনবিঘা করিডরে কোচবিহারের বাগডোগড়া বিমানবন্দর থেকে সড়ক পথে এসে পৌঁছালে কোচবিহার-৪৫ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের একটি চৌকস দল তাঁকে গার্ড অব অনার প্রদান করে।

এ সময় বিএসএফের কলকাতা ইস্টার্ণ কমান্ডের মহাপরিচালক(ডিজি) পঙ্কজ সিং, কোচবিহার-৪৫ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের পরিচালকসহ উত্তরবঙ্গ সদর দপ্তরের বিএসএফ কর্মকর্তাসহ মহাপরিচালকের পত্নীও উপস্থিত ছিলেন।  

এদিকে ভারতীয় বিএসএফের মহাপরিচালক রাকেশ আস্থানা তিনবিঘা করিডর সীমান্ত পরিদর্শনের সময় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের(বিজিবি) পক্ষে রংপুর সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল মোঃ ইয়াছির জাহান হোসেন ও তিস্তা-৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্ণেল মোহাম্মদ ইসাহাক আলীসহ বিজিবির কর্মকর্তাগণ ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। এসময় তিনবিঘা করিডরের আম্রকাননে বিএসএফ-বিজিবি উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাগণের মধ্যে প্রায় ঘন্টাব্যাপী সীমান্তের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ফলপ্রসূ সৌজন্য বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। 

ভারতীয় বিএসএফের মহাপরিচালক (ডিজি) রাকেশ আস্থানার সঙ্গে ফুলেল শুভেচ্ছা ও সৌজন্য বৈঠক প্রসঙ্গে বিজিবির রংপুর সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল মোঃ ইয়াছির জাহান হোসেন বলেন, ‘বিএসএফের মহাপরিচালকসহ উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ সীমান্ত হত্যা শূন্যে নামিয়ে আনার ব্যাপারে দৃঢ়প্রতিজ্ঞা ব্যক্ত করেছেন। বিজিবি-বিএসএফের যৌথ টহল করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আবার চালু করা হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘যে কোন সময়ের তুলনায় বর্তমানে উভয় দেশের জনগণের মধ্যে ভালো বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বিরাজমান উল্লেখ্য করে সৌজন্য বৈঠকে বিএসএফ মহাপরিচালক উভয় দেশের জনগণের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। সীমান্তে চোরাচালান কমে যাওয়ায় বিজিবি-বিএসএফের যৌথ টহল অনেক বেশি কার্যকরী উল্লেখ্য করে তিনি করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে তা পূনরায় চালুর বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেন।’

সৌজন্য বৈঠক শেষে বিএসএফের মহাপরিচালক ও মহাপরিচালক পত্নীকেসহ বিএসএফের কর্মকর্তাদের বিজিবির পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান করা হয়। বিএসএফও বিজিবিকে শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান করে।

উল্লেখ্য, বিএসএফ মহাপরিচালক রাকেশ আস্থানা দুইদিনের সফরে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন সীমান্ত পরিদর্শন করছেন। এছাড়াও তিনি বিএসএফের উত্তরবঙ্গ সদর দফতরে সৈনিক সম্মেলনেও বক্তব্য রাখবেন বলে সীমান্ত সুত্র নিশ্চিত করেছে। 

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –