• মঙ্গলবার   ০৩ আগস্ট ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ১৮ ১৪২৮

  • || ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

সর্বশেষ:
টিকার আওতায় ১ কোটি ৩৪ লাখ মানুষ, অপেক্ষায় দেড় কোটি ২ আগস্ট ১৯৭১: ‘মুজিবের ফাঁসি হলে একই দড়িতে ঝুলবে পাকিস্তান’ প্রণোদনার জন্য স্মার্ট কার্ড পাবেন দেড় কোটির বেশি কৃষক বঙ্গবন্ধু হত্যার ষড়যন্ত্রকারীদের মুখোশ উন্মোচনের প্রত্যাশা ভালোবাসার বৃষ্টিতে ভিজলো ‘একটি দেশের জন্য গান’

বুড়িমারীতে জুয়েল হত্যার ঘটনায় আরও একজন গ্রেফতার 

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৩০ জুন ২০২১  

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারীতে শহিদুন্নবী জুয়েলকে পিটিয়ে হত্যার পর মরদেহ পোড়ানোর ঘটনায় দায়ের করা হত্যা মামলায় শরিফুল ইসলাম (৩৯) নামে আরও একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ৪৯ জনকে গ্রেফতার করা হলো। গতকাল মঙ্গলবার (২৯ জুন) রাতে পাটগ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার শরিফুল ইসলাম জেলার আদিতমারী উপজেলার পশ্চিম ভেলাবাড়ি গ্রামের মৃত ওসমান আলীর ছেলে। তিনি পাটগ্রামের ধবলসুতি মসজিদের ইমাম।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের পরিদর্শক আবু হাসান কবির  বলেন, শহিদুন্নবী জুয়েল হত্যায় দায়ের করা হত্যা মামলা, পুলিশের ওপর হামলা ও বুড়িমারী ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) ভবনে হামলার মামলায় অজ্ঞাতনামা আসামি হিসেবে মঙ্গলবার রাতে শরিফুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়।

তদন্তে হত্যা ও মরদেহ পোড়ানোর ঘটনায় তার সম্পৃক্ততা পাওয়ায় হত্যা মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। গ্রেফতার শরিফুল ইসলাম ঘটনার এক সপ্তাহ আগে চাকরির সুবাদে পাটগ্রামে যান। অল্প সময় বুড়িমারীতে অবস্থান করায় ওই এলাকার কাউকে তিনি চেনেন না। ফলে প্রাথমিক জিজ্ঞসাবাদে তেমন কোনো তথ্য দিতে পারেননি শরিফুল। তবে ব্যাপক জিজ্ঞসাবাদের জন্য রিমান্ড আবেদনের বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার সঙ্গে পরামর্শ করে করা হবে বলেও জানান তিনি।  

জুয়েল হত্যার ঘটনায় দায়ের করা তিন মামলায় পুলিশ এখন পর্যন্ত ৪৯ জনকে গ্রেফতার করেছে। এর মধ্যে হত্যা মামলায় ১৬ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। যার মধ্যে মূলহোতা বুড়িমারী ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের সভাপতি আবুল হোসেন ওরফে হোসেন ডেকোরেটর এবং মসজিদের খাদেম জোবেদ আলীসহ ছয় জন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। ওই মামলায় গ্রেফতারদের মধ্যে হত্যা মামলায় মুয়াজ্জিন ও অন্য দুই মামলায় মোট ছয় জন জামিনে মুক্তি পেয়েছেন বলেও নিশ্চিত করেন জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিরুল ইসলাম।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –