• মঙ্গলবার ২১ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৭ ১৪৩১

  • || ১২ জ্বিলকদ ১৪৪৫

ইসরায়েলকে শান্ত রাখতে চাইছে ফ্রান্স-যুক্তরাজ্য

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৬ এপ্রিল ২০২৪  

সিরিয়ায় নিজেদের দূতাবাসে হামলার প্রতিশোধ হিসেবে ইসরায়েলের ভূখণ্ডজুড়ে ইরানের নজিরবিহীন ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলার কড়া নিন্দা জানিয়েছে ফ্রান্স ও যুক্তরাজ্য। এ সময় ইসরায়েলের পাশে থাকার ঘোষণাও দিয়েছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাক্রোঁ ও ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন।

তবে দুই নেতাই তেহরানের এ হামলার জাবাব দিতে কঠোরভাবে নিষেধ করেছেন নেতানিয়াহু প্রশাসনকে। জানান, মধ্যপ্রাচ্যে আর কোনো নতুন সংঘাত দেখতে চায় না তাদের দেশ।

গণমাধ্যমে ফরাসি প্রেসিডেন্ট জানান, সংঘাত এড়িয়ে চলার জন্য সম্ভাব্য সব কিছুই করবে ফ্রান্স। এ সময় ইসরায়েলকে ইরানে পাল্টা হামলা না চালানোর জন্য পরামর্শ দেওয়ার চেষ্টা করবেন বলেও জনান মাক্রোঁ।

ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, ইরানের হামলার জবাব না দিয়ে গাজায় সম্ভাব্য যুদ্ধবিরতির ওপর নিবিষ্ট থাকা উচিত তেলআবিবের। ইসরায়েলিরা যদি প্রতিক্রিয়া দেখাতে চায় তাহলে তারা সঠিক ভাবছে, তবে এ ধরনের পদক্ষেপ কেবল সংঘাতকে আরও বাড়িয়ে তুলব।

ইরানের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রেখে চলা রাশিয়াও সংযত থাকার পরামর্শ দিয়ে বলেছে, সংঘাত আরো বাড়লে তা ‘কারো স্বার্থের’ জন্য ভালো হবে না। চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীও ইসরায়েলকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। তবে সোমবার বিকালে ইসরায়েলের যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভার বৈঠকের আগে প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর একজন মুখপাত্র বলেন, দেশের জনগণকে কীভাবে সুরক্ষা দেওয়া হবে, সে সিদ্ধান্ত ইসরায়েলই নেবে।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –