• বুধবার   ২০ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ৪ ১৪২৮

  • || ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সর্বশেষ:
পীরগঞ্জের জেলেপল্লীতে আগুন: ফেসবুকে পোস্ট দেওয়া সেই যুবক গ্রেফতার সারাদেশে আ’লীগের ‘সম্প্রীতি সমাবেশ-শান্তি শোভাযাত্রা’ কর্মসূচি সেবা খাতের আয় দেশে আনার পদ্ধতি আরো সহজ করলো কেন্দ্রীয় ব্যাংক বেশি ফলন, বন্যাসহনীয় আগাম আমন বীনা-১১ চাষে ঝুঁকছেন কৃষক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম মনিটর করছে পুলিশ, ‍গুজব ছড়ালেই ব্যবস্থা

‘চীনবিরোধী’ বাণিজ্যিক জোটে যোগ দিতে চীনের আবেদন 

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১  

চীনের প্রভাব কমাতে এশীয় ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের দেশগুলোকে নিয়ে গঠিত অংশীদারিত্বমূলক বাণিজ্যিক জোট সিপিটিপিপি’তে যোগ দিতে আনুষ্ঠানিকভাবে আবেদন করেছে চীন।

যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়ার চীনবিরোধী নিরাপত্তা জোট ‘অকাস’ গঠনের ঘোষণা দেওয়ার পরদিনই কম্প্রিহেনসিভ অ্যান্ড প্রোগ্রেসিভ এগ্রিমেন্ট ফর ট্রান্স প্যাসিফিক পার্টনারশিপে (সিপিটিপিপি) বেইজিংয়ের যুক্ত হওয়ার এ ইচ্ছার কথা জানা গেল।

চীন জোটটিতে যোগ দিলে এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে তাদের একচ্ছত্র প্রভাব বিস্তারের পথ সুগম হবে বলে ধারণা অনেক পর্যবেক্ষকের।

বেইজিংয়ের প্রভাব হ্রাসে বারাক ওবামার আমলে যুক্তরাষ্ট্রই প্রথম এই এশিয়া-প্যাসিফিক বাণিজ্য জোটের উদ্যোগ নিয়েছিল বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বিবিসি। তবে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০১৭ সালে এই উদ্যোগ থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে সরিয়ে নেন। পরবর্তীতে জাপানের নেতৃত্বে সিপিটিপিপি গঠনের আলোচনা শুরু হয়।

২০১৮ সালে ১১টি দেশ এতে স্বাক্ষর করে। এ দেশগুলোর মধ্যে জাপান ছাড়াও আছে অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, চিলি, ব্রুনেই, মালয়েশিয়া, মেক্সিকো, পেরু, সিঙ্গাপুর, ভিয়েতনাম ও নিউ জিল্যান্ড।

জোটের প্রশাসনিক কেন্দ্রের দায়িত্ব পালন করছে নিউ জিল্যান্ড।

বৃহস্পতিবার চীনের বাণিজ্য মন্ত্রী ওয়াং ওয়েনতাও জানান, তিনি সিপিটিপিপির মুক্ত বাণিজ্য চুক্তিতে যোগ দিতে নিউ জিল্যান্ডের বাণিজ্য মন্ত্রী ডেমিয়েন ও’কনরকে চিঠি দিয়েছেন।

এ আবেদনের পরের পদক্ষেপ কী হবে, তা নিয়ে দুই মন্ত্রী আলোচনাও করেছেন বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে চীনের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

চলতি বছরের জুনে যুক্তরাজ্য সিপিটিপিপিতে যোগ দিতে আনুষ্ঠানিক আলোচনা শুরু করে; থাইল্যান্ডও এতে যোগ দেওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

চীন গত বছরের নভেম্বরে ১৪টি দেশের সঙ্গে মিলে অন্য একটি মুক্ত বাণিজ্য জোট রিজিওনাল কম্প্রিহেনসিভ ইকোনমিক পার্টনারশিপও (আরসিইপি) করেছে। 

বিশ্বের সবচেয়ে বড় এ বাণিজ্য জোট আরসিইপিতে চীন ছাড়াও আছে দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান, অস্ট্রেলিয়া ও নিউ জিল্যান্ড।

তবে এসব গুরুত্বপূর্ণ বড় চুক্তিতে কোনো অংশগ্রহন নেই যুক্তরাষ্ট্রের। ফলে ধারনা করা হচ্ছে, এ অঞ্চলে চীনের একচ্ছত্র প্রভাব আরও বাড়তে চলেছে; বিপরীতে, সুযোগ কমছে যুক্তরাষ্ট্রের।

সূত্র: রয়টার্স

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –