• শুক্রবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৪ ১৪২৯

  • || ০৪ রজব ১৪৪৪

সর্বশেষ:
বৃষ্টি নামলেই শীত, লঘুচাপের ইঙ্গিত দেশে নতুন সুপারফুড ‘সাউ কিনোয়া-১’ ‘আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সরকার সব ধরনের প্রস্তুতি নিচ্ছে’ স্বল্প খরচে বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্য গ্রহণ করতে হবে জমি নিয়ে সংঘর্ষে দুই যুবক নিহত: ঘটনা জেরে ৩০ বাড়িতে আগুন

ঘন কুয়াশা ও তীব্র শীত থাকবে আরো ৪ দিন

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৪ জানুয়ারি ২০২৩  

পৌষের মাঝামাঝি এসে জেঁকে বসেছে শীত, আরো চারদিন এমন পরিস্থিতির উন্নতির কোনো আভাস নেই। আাবহাওয়া অফিস বলছে, শৈত্যপ্রবাহ না থাকলেও শীতের অনুভূতি বাড়ার কারণ হচ্ছে সূর্য দেখা না যাওয়া।

মঙ্গলবার ঢাকা আবহাওয়া অফিসের আবহাওয়াবিদ মো. ওমর ফারুক এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, আগামী ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত পরিস্থিতির উন্নতির কোনো আভাস নেই। এই সময়ের পর ঘন কুয়াশা কাটতে পারে। আর কুয়াশা কাটলেই সূর্যের দেখা মিলবে।

তিনি বলেন, দেশের মধ্যভাগ, উত্তর-পশ্চিম, উত্তর ও উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ঘন কুয়াশা পড়ছে। এ কারণে কোথাও কোথাও প্রায় সারাদিনই সূর্যের দেখা মিলছে না। ফলে দিনের তাপমাত্রা ব্যাপক হারে নেমে যাচ্ছে। উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে দিনের তাপমাত্রা ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি কমেছে। এতে শীতের অনুভূতি রাতের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে দিনেও বেড়েছে।

ঈশ্বরদীতে একদিনের ব্যবধানে দিনের তাপমাত্রা কমেছে ৮ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যশোরে একদিনের ব্যবধানে দিনের তাপমাত্রা কমেছে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকাতেও কমেছে ৫ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

তিনি আরো জানান, সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রার পার্থক্য কমে গেলে শীতের অনুভূতি বেড়ে যায়। ঢাকায় সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রার পার্থক্য নেমে এসেছে ৫ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। যশোরে ৫ দশমিক ২ ডিগ্রিতে, আর ঈশ্বদীতে সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রার পার্থক্য ৩ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এক পূর্বাভাসে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, উপমহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। এ কারণে বুধবার (৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যা পর্যন্ত অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে।

এছাড়া রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা এবং ময়মনসিংহ বিভাগে মধ্যরাত থেকে দুপুর পর্যন্ত মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা এবং দেশের অন্যত্র মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে।

এ সময় সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত এবং দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে। ঢাকায় উত্তর অথবা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় বাতাসের সর্বোচ্চ গতিবেগ থাকবে ৫ থেকে ১০ কিলোমটার পর্যন্ত। আগামী দুই দিনে আবহাওয়ার উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন নেই। বর্ধিত পাঁচদিনে আবহাওয়ার সামান্য পরিবর্তন হতে পারে।

মঙ্গলবার তেঁতুলিয়ায় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল টেকনাফে ২৮ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

বুধবার ঢাকায় সূর্যোদয় হবে ভোর ৬টা ৪২ মিনিটে এবংঅস্ত যাবে সন্ধ্যা ৫টা ২৪ মিনিটে।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –