• বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৮ ১৪৩১

  • || ১৪ জ্বিলকদ ১৪৪৫

হিলি সীমান্তে বাংলাদেশ-ভারত ‘সম্প্রীতির মিষ্টিমুখ’     

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৬ মার্চ ২০২৩  

 

সম্প্রীতি ও ভাতৃত্বের বাতায়নে ছিল না কেউ কারও প্রতিপক্ষ। ছিল না একে-অপরের দিকে বন্দুকের নিশানা। তাই কিছুক্ষণের জন্য হলেও সব ভুলে ছিলেন তারা। কর্তব্য ও দায়িত্বের মাঝে বিনিময় করলেন স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা। করলেন হ্যান্ডশেক ও কোলাকুলি। আদান-প্রদান হলো মিষ্টি। বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বিজিবি ও বিএসএফের মধ্যে এমনই ছবি দেখা গেল হিলি সীমান্তের চেকপোস্টে।

বিজিবি জানায়, রবিবার (২৬ মার্চ) বাংলাদেশে ৫৩তম মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সকাল ১১টায় জয়পুরহাট ২০ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়কের পক্ষ থেকে বিএসএফ সদস্যদের শুভেচ্ছা জানানোর জন্য হিলি সিপি ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মাহবুবুর রহমানের নেতৃত্বে বিজিবি সদস্যরা মিষ্টির প্যাকেট নিয়ে চেকপোস্টে যান। এসময় সেখানে কর্তব্যরত ভারতের হিলি বিএসএফ ক্যাম্পের এস আই ইউকে পিলাই হাতে মিষ্টির প্যাকেট তুলে দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

পক্ষান্তরে বিএসএফ-ও বিজিবির কোম্পানি কমান্ডার মাহবুবুর রহমানের হাতে মিষ্টির প্যাকেট তুলে দেন এবং শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। মিষ্টি বিনিময় পর্ব শেষে তারা একে অপরের সাথে হ্যান্ডশেক ও কোলাকুলি করেন। এসময় উভয় বাহিনীর নারী ও পুরুষ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ভারতের হিলি বিএসএফ ক্যাম্পের এসআই ইউকে পিলাই জানান, আমরা সীমান্তে শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় কাজ করি। আমাদের সাথে বিজিবির ভালো সম্পর্ক আছে। বিভিন্ন সময়ে এমন আয়োজন আমাদের সুসম্পর্ককে আরও মজবুত করে। 

জানতে চাইলে বিজিবির হিলি সিপি ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘সীমান্তে বিজিবি ও বিএসএফের মধ্যে সুসম্পর্ক রয়েছে। আমরা এবং তারা সীমান্ত সুরক্ষায় একই দায়িত্ব পালন করি। তাই বন্ধুপ্রতিম দুই দেশের জাতীয় এবং ধর্মীয় দিবসগুলোতে আমরা একে অপরকে শুভেচ্ছা জানিয়ে থাকি। এতে করে উভয় বাহিনীর মধ্যে ভ্রাতৃত্ব ও সম্প্রীতি বজায় থাকে। ফলে সীমান্তের যে কোন সমস্যা সমাধান করা আমাদের পক্ষে সহজ হয়।’ এদিকে চেকপোস্টে বিজিবি ও বিএসএফের মধ্যে সৌহার্দ্যপূর্ণ এমন আয়োজন উপভোগ করেন বাংলাদেশ ও ভারতের পাসপোর্টযাত্রী সহ স্থানীয়রা।  

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –