• শুক্রবার   ১৯ আগস্ট ২০২২ ||

  • ভাদ্র ৪ ১৪২৯

  • || ২০ মুহররম ১৪৪৪

সর্বশেষ:
এদেশের মাটিতে সবার সমান অধিকার: প্রধানমন্ত্রী নীলফামারীতে অপহৃত কিশোর উদ্ধার, আটক ৩ দিনের তাপমাত্রা কমবে ১ থেকে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস অর্থনীতির চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করার সক্ষমতা আছে বাংলাদেশের মেট্রোরেলের স্টেশনের কাজ প্রায় শেষ

দক্ষিণাঞ্চলে বইছে নব জাগরণের ঢেউ

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৮ জুন ২০২২  

পদ্মা সেতুতে গাড়ি চলাচল শুরুর প্রথম ২৪ ঘণ্টায় যান চলাচল করেছে ৫১ হাজার ৩১৬টি। রোববার ভোর ৬টা থেকে ২৪ ঘণ্টায় এসব গাড়ি সেতু ব্যবহার করে গন্তব্যে গেছে। এ সময় টোল আদায় হয়েছে দুই কোটি ৯ লাখ ৪০ হাজার ৩০০ টাকা। 

সোমবার ঢাকা থেকে পদ্মা সেতু দিয়ে ভারতের কলকাতায় যাত্রীবাহী বাস গেছে। ওই বাস অন্য সময়ের চেয়ে দুই ঘণ্টা আগে পৌঁছেছে। অন্যান্য গাড়িও কম সময়ে দ্রুত গন্তব্যে পৌঁছেছে। সংশ্লিষ্টরা জানান, কম সময়ে যাতায়াত সুবিধার ফলে দক্ষিণাঞ্চলের জেলাগুলোয় নবজাগরণের ঢেউ লেগেছে।

দ্রুততম সময়ে পণ্য আনা-নেওয়া করতে পারছেন ব্যবসায়ীরা। পর্যটকরা এখন দক্ষিণমুখী হচ্ছেন। দীর্ঘ মেয়াদে এর সুফল আরও বেশি পাওয়া যাবে বলে আশাবাদী সংশ্লিষ্টরা। 

এদিকে সেতুর নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। টহল দিয়েছেন সেনা সদস্যরা। সেতুর রেলিংয়ের নাট-বোলটু নিয়ে বিতর্ক ওঠার পর এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। 

খুলনা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি কাজী আমিনুল হক বলেন, সেতু চালু হতেই যে দৃশ্যমান প্রভাব পড়েছে, তা হলো যাত্রী ও মালবাহী যানের দ্রুত চলাচল। বেশ কয়েকটি বাস কোম্পানি ঢাকা-খুলনা রুটে নতুন বাস নামিয়েছে।

এতে শ্রমিকদের কর্মসংস্থান হচ্ছে। অপর দিকে পণ্য পরিবহণ দ্রুত হওয়ায় এখানকার কৃষক ও ব্যবসায়ীরা তাদের পণ্য দ্রুত ঢাকায় নিতে পারছেন। এতে স্থানীয় অর্থনীতিতে প্রভাব পড়তে শুরু করেছে।

অপর দিকে সাগরকন্যাখ্যাত কুয়াকাটায় পর্যটকদের সমাগম বেড়েছে। ওই রুটেও বেশ কয়েকটি নতুন কোম্পানি বাস চালু করেছে। এর প্রভাব পড়তে শুরু করেছে পর্যটন খাতে।

আসন্ন পর্যটন মৌসুমে এ অঞ্চল আরও জমজমাট হবে বলে আশা স্থানীয় ব্যবসায়ীদের। এ বিষয়ে ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন অব কুয়াকাটা (টোয়াক) সভাপতি রোমান ইতিহাস তুষার যুগান্তরকে বলেন, অল্প কদিন আগেও সড়কপথে কুয়াকাটা আসতে ১০-১২ ঘণ্টা সময় লাগত।

পদ্মা সেতু চালুর পর অর্ধেক সময়ে পর্যটকরা কুয়াকাটা আসছেন। গত দুদিনেই কুয়াকাটায় পর্যটকের সংখ্যা বেড়েছে। ক্রমান্বয়ে তা আরও বাড়বে বলে আশা করছি। এছাড়া পর্যটন খাতে বিনিয়োগকারীরা নড়েচড়ে বসেছেন।

পরিবহণ ব্যবসায়ীরা জানান, সেতু চালুর পর ঢাকা থেকে বরিশাল ৪ ঘণ্টা, পর্যটন স্থান কুয়াকাটা ৬ ঘণ্টা, খুলনা ৫ ঘণ্টা, বেনাপোল ও সাতক্ষীরায় ৬ ঘণ্টায় যাত্রীবাহী বাস পৌঁছেছে। প্রতিটি রুটেই কয়েক ঘণ্টা সময় কম লাগছে। এতে বাসের ট্রিপ বেড়ে গেছে। যাত্রীদেরও এ পথ ব্যবহারে আগ্রহ বাড়ছে। 

জানতে চাইলে শ্যামলী এনআর পরিবহণের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শুভঙ্কর ঘোষ রাকেশ যুগান্তরকে বলেন, ঢাকা-কলকাতা রুটে চলা বাস প্রথমবারের মতো সোমবার পদ্মা সেতু দিয়ে মাগুরা হয়ে কলকাতা গেছে।

সকাল ৭টায় ঢাকা থেকে ছেড়ে বাসটি সাড়ে ৪টার মধ্যে কলকাতায় পৌঁছেছে। আন্তর্জাতিক রুট পারমিট পাওয়া এ বাস পাটুরিয়া ফেরি হয়ে যেতে আরও দুই ঘণ্টা বেশি সময় লাগত। পদ্মা সেতুর ফলে ওই সময় সাশ্রয় হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা এখন আশা করছি, পদ্মা সেতু দেখতে ভারতীয় পর্যটকরাও এখন বাংলাদেশে আসবেন। এ দেশের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান ঘুরে দেখার আগ্রহ তাদের মধ্যে সৃষ্টি হবে।

গ্রিন লাইন পরিবহণের ঢাকা-খুলনা রুটের বাসচালক নূর ইসলাম জানান, সোমবার সকাল ৯টায় খুলনা থেকে ছেড়ে ঢাকায় ২টা ২০ মিনিটে পৌঁছেছেন। আবার বিকাল সাড়ে ৪টায় রওয়ানা হয়ে খুলনায় ৯টা ২০ মিনিটে পৌঁছেছেন।

দুই যাত্রায় পথিমধ্যে বিরতিও দিয়েছেন ২০ মিনিট। তিনি জানান, পদ্মা সেতুর কারণে এক দিনেই দুবার ট্রিপ দিতে পেরেছেন। যাত্রীরাও স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করছেন। ফেরি থাকলে এই সময়ে পৌঁছানো সম্ভব হতো না। 

যশোর জেলা পরিবহণ সংস্থা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আজিজুল আলম মিন্টু বলেন, পদ্মা সেতুর সুফল যশোরে পৌঁছেছে। এ সেতু চালুর ফলে পাটুরিয়া ফেরিঘাটে গাড়ির চাপ কমে গেছে। যশোর থেকে এখন দুই পথ পাটুরিয়া ও পদ্মা সেতু হয়ে গাড়ি চলাচল করছে। তবে কালনা সেতু চালু হলে এ অঞ্চলের মানুষ পুরো সুফল পেত। 

জানা যায়, পদ্মা সেতুতে গাড়ি চালুর প্রথম ২৪ ঘণ্টায় সোমবার সকাল ৬টা পর্যন্ত সেতু পাড়ি দিয়েছে ৫১ হাজার ৩১৬টি গাড়ি। এর মধ্যে মাওয়া প্রান্ত থেকে ২৬ হাজার ৫৮৯টি ও জাজিরা প্রান্ত থেকে ২৪ হাজার ৭২৭টি গাড়ি সেতুতে প্রবেশ করেছে। এ বাবদ আয় হয়েছে দুই কোটি ৯ লাখ ৪০ হাজার ৩০০ টাকা। 

রেলিংয়ের নাট-বোলটু : পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের নাট-বোলটু টাইট দেওয়া হয়েছে। সোমবার ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের শ্রমিকরা এসব নাট-বোলটু টাইট দেন।

ওই সময়ে একটি বেসরকারি টেলিভিশনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে একজন শ্রমিক দাবি করেন, ‘সেতুর আরও কিছু কাজ বাকি থাকায় নাট-বোলটুগুলো লাগানো হলেও পুরোপুরি টাইট দেওয়া হয়নি।  বাকি থাকা কাজগুলো সম্পন্ন হওয়ার পর নাট-বোলটু টাইট দেওয়ার কথা ছিল।’

আরেকজন শ্রমিক বলেন, ‘রেলিং বসানোর সময় আমরা হালকা টাইট দিয়ে গেছি। এখন আইসা দেখি অনেকগুলো নাট খুইল্যা নিয়া গেছেগা। কিছু নাটের নিচের ওয়াসার হালায় দিছে, এই নাট হালায় দিছে। অনেকগুলো নাট আজ সকালে এসে আমরা লাগাইছি। এহন শক্ত হবে।’

অন্য এক শ্রমিক বলেন, ‘বাঙালি সবকিছু নিয়ে টিকটক করে। এই সেতু নিয়েও টিকটক করেছে। সেতুর নাটগুলো খুলে ফেলছে আর টিকটক করছে। এখন আজকে নতুন করে নাট এনে লাগাইতে হইছে।’

পদ্মা সেতুতে গাড়ি চলাচল শুরুর দিন রোববার রেলিংয়ের নাট-বোলটু খোলার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় বায়েজিদ তালহা নামের এক যুবককে (২৬ জুন) আটক করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এর পরই বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন মহলে আলোচনা-সমালোচনা তৈরি হয়। ওই সমালোচনার মধ্যে টাইট দেওয়া হলো নাট-বোলটু। 

পদ্মা সেতু পারাপারে দায়িত্বশীল আচরণের আহ্বান : পদ্মা সেতু পারাপারে যাত্রীসাধারণকে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনের আহ্বান জানিয়ে সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সোমবার এক বিবৃতিতে বলেন, পদ্মা সেতু অবকাঠামো একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় স্থাপনা এবং দেশের এক বড় সম্পদ।

এর নিরাপত্তা ও স্থায়িত্ব রক্ষা করা আমাদের সবার দায়িত্ব। বিবৃতিতে তিনি সেতু পারাপারে বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ যেসব নির্দেশনা জারি করেছে, তা যথাযথভাবে পালন করে শৃঙ্খলা বজায় রাখারও আহ্বান জানান।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –