• সোমবার   ২৭ জুন ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৩ ১৪২৯

  • || ২৬ জ্বিলকদ ১৪৪৩

সর্বশেষ:
যান চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হলো পদ্মা সেতুর প্রবেশদ্বার বাংলাদেশ গুরুত্বপূর্ণ দেশ: জো বাইডেন বন্যার্তদের সাহায্যের কথা বলে ফান্ড ভারি করছে বিএনপি পদ্মা সেতু উদ্বোধনের সঙ্গে সঙ্গে খুলে গেল আয়ের খাতা পদ্মা সেতু নিয়ে ষড়যন্ত্র : জড়িতদের খুঁজতে রুল শুনবেন হাইকোর্ট

‘ডিজিটাল বাংলাদেশ না হলে মহামারিতে বিচ্ছিন্ন হয়ে যেতাম’

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৬ মে ২০২২  

সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যদি বাংলাদেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশ হিসেবে রূপান্তর না করতেন তাহলে আমরা মহামারির সময় বিচ্ছিন্ন হয়ে যেতাম।

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৩তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে বুধবার বিকেলে কবির বাল্যস্মৃতি বিজড়িত দরিরামপুর নজরুল একাডেমী মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, করোনা ও যুদ্ধ বিগ্রহ অর্থনৈতিক মন্দায় যেখানে অনেক দেশ বিপদগ্রস্ত সেখানে বাংলাদেশ বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি রয়েছে, তবে পার্শ্ববর্তী অনেক দেশের তুলনায় দ্রব্যমূল্য অনেকটাই ক্রয় ক্ষমতার ভেতরে রয়েছে।

নজরুল আর বঙ্গবন্ধু আদর্শিকভাবে সমমনা ছিলেন উল্লেখ করে খসরু বলেন, নজরুল তার লেখায় সর্বভারতের স্বাধীনতার আন্দোলন করেছেন সারাজীবন। ব্রিটিশরা যখন ধর্মের ভিত্তিতে পাকিস্তান-ভারত বিভক্ত করে, এরপর থেকেই  পশ্চিম পাকিস্তান বাঙালিদের উপর অত্যাচার চালিয়ে আসছিল। এই অত্যাচার থেকে মুক্ত হওয়ার জন্য জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতার পরপরই বঙ্গবন্ধু নজরুলকে দেশে এনে জাতীয় কবির মর্যাদা দিয়ে তার চিকিৎসাসেবা ও সার্বক্ষণিক খোঁজখবর ব্যবস্থা করেন। এই উপমহাদেশের আর কোনো নেতাই নজরুলকে এতো সম্মান করেনি। নজরুল ছিলেন আমাদের চেতনা, উৎসাহ ও অনুপ্রেরণা। বাঙালির সাহিত্য জুড়ে নজরুলের যে বিচরণ তা আগামী একশত বছরেও কেউ ছুতে পারবে না। 

ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক এনামুল হকের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সাবিহা পারভীন, ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের প্রশাসক অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান, ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ সুপার আহমারুজ্জামান, ত্রিশাল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মতিন সরকার, ত্রিশাল পৌরসভার মেয়র এবিএম আনিসুজ্জামান।

অনুষ্ঠানে নজরুল স্মারকবক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. শামছুদ্দিন চৌধুরী। স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আক্তারুজ্জামান।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –