• সোমবার   ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ১১ ১৪২৮

  • || ১৭ সফর ১৪৪৩

সর্বশেষ:
প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে দেওয়া হবে ৮০ লাখ টিকা আবারও জ্বালাও পোড়াও করলে জবাব দিতে প্রস্তুত আ.লীগ করোনায় চার মাসে সর্বনিম্ন মৃত্যু মাদককারবারির ছুরিকাঘাতে নিহত এএসআই’র দাফন সম্পন্ন হরিপুরে কৃষকের মাঝে কৃষি উপকরণ বিতরণ

বদরগঞ্জে জমি নিয়ে বিরোধ, বসতভিটায় শত্রুতার আগুন

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২১ আগস্ট ২০২১  

রংপুরের বদরগঞ্জে একটি হিন্দু পরিবারের সদস্যদের প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে তাদের বসতবাড়িতে আগুন দেওয়ার ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। জমি নিয়ে বিরোধের জেরে ‘ওই কৃষকের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মারাসহ লাশ গুম করার হুমকি দেওয়া হয় বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী কৃষক মনোরঞ্জন রায় বৃহস্পতিবার (১৯ আগস্ট) রাতে বদরগঞ্জ থানায় ছয়জনের নাম উল্লেখ করে অভিযোগ দিয়েছেন।

এলাকাবাসী ও লিখিত অভিযোগের সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ বাওচণ্ডী বানিয়াপাড়ার কৃষক মনোরঞ্জন রায় পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া দুই একর জমি প্রায় ৬০ বছর ধরে চাষাবাদ করছেন। হঠাৎ করে গত বছর একই এলাকার পশ্চিমপাড়ার মহুবুল ও তার লোকজন মনোরঞ্জনের জমি তাদের বলে দাবি করে জবর-দখল করার চেষ্টা চালান। এ ঘটনায় স্থানীয় থানায় কয়েকদফা সালিস বৈঠক হয়। সেখানে শান্তিপূর্ণ আলোচনায় ওই জমিতে না উঠতে প্র্রতিশ্রুতি দেন মহুবুল। গত তিন মাস আগে আবারও মহুবুল হক লোকজন নিয়ে ওই জমিতে খুঁটি গাড়েন। এ নিয়ে মনোরঞ্জন রায়ের সঙ্গে তাদের চরম বিরোধ সৃষ্টি হয়। এর জেরে গত বুধবার মনোরঞ্জনের রিকশাভ্যান আটক করে তাকে প্রকাশ্যে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়। এমনকি এ ঘটনার পরের দিন বৃহস্পতিবার রাতে মনোরঞ্জন রায়ের বসতবাড়িতে কে বা কারা আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে বস্তাভর্তি ধান, আসবাবপত্র ও জমির গুরুত্বপুর্ণ কিছু কাগজ আগুনে পুড়ে যায়। আগুন ধরিয়ে দেওয়ার জন্য মনোরঞ্জন রায় প্রতিপক্ষ মহুবুল হক ও তার লোকজনকে দায়ী করে বৃস্পতিবার রাতে মহুবুল হক, ফুল বাবু, ইউনুস আলী, ইলিয়াস আলী, একরামুল হক ভুট্রুসহ ছয়জনের নামে বদরগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

কৃষক মনোরঞ্জন রায় বলেন, ‘৬০ বছর ধরে পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া জমি ভোগ দখল করে চাষাবাদ করছি। হঠাৎ করে মহুবুল, ফুলবাবু ওই জমি তাদের বলে দাবি করে। জমি ছেড়ে না দিলে তারা প্রকাশ্যে আমার পরিবারকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। কি খাবার আছে খেয়ে নে। তোদের লাশ কেউ খুঁজে পাবে না। গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেবো। জমি ছেড়ে দিবি। না হলে হাত পা ভেঙে ভারতে পাঠিয়ে দেবে বলে আমাদের প্রকাশ্যে হুমকি-ধমকি দেওয়া হয়।’

এদিকে অভিযুক্তদের বাড়িতে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি। এদের মধ্যে ফুল বাবুর মেয়ে ফুলবানু বলেন, ‘মনোরঞ্জন রায়ের সাথে আমাদের জমি নিয়ে বিরোধ আছে ঠিকই। কিন্তু তাদের বাড়ি আমাদের বাড়ি থেকে দুরে। সেখানে গিয়ে আমরা কিভাবে আগুন লাগাবো, এটা কিভাবে সম্ভব? তাদের কোন অভিযোগই সত্য নয় বলে দাবি করেন তিনি।’

বদরগঞ্জ থানার ওসি হাবিবুর রহমান বলেন, ‘লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। বসতভিটায় আগুন দেওয়াসহ ওই কৃষককে প্রাণনাশের হুমকির ঘটনায় সঠিক তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –