• শুক্রবার   ২০ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪২৯

  • || ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩

সর্বশেষ:
শ্বশুরবাড়িতে জামাইয়ের গলাকাটা লাশ ভুরুঙ্গামারীতে কালবৈশাখী তাণ্ডবে দুই শতাধিক বসতবাড়ি লণ্ডভণ্ড রংপুর চিড়িয়াখানা থেকে তিন হরিণ বিক্রি

কৃষক পেটানো নাটোরের সেই ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার 

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৮ এপ্রিল ২০২০  

নাটোরের লালপুরে ত্রাণ চাওয়ায় কৃষক শহিদুল ইসলামকে ডেকে এনে মারধর করার অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান আবদুস সাত্তারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

জানা যায়, করোনার প্রভাবে লালপুরের ৯ নং অর্জুনপুর বরমহাটি (এবি) ইউনিয়নের আঙ্গারীপাড়া গ্রামের শহিদুল ইসলাম কাজ হারিয়ে কষ্টে দিন কাটাচ্ছিলেন। লোকের মুখে শুনে তিনি ১০ এপ্রিল তার কষ্টের কথা জানিয়ে ৩৩৩ নম্বরে ফোন করে ত্রাণ চান। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে ১২ এপ্রিল ইউপি চেয়ারম্যান আবদুস সাত্তার কৃষক শহিদুল ইসলামকে চৌকিদারকে দিয়ে ডেকে এনে ইউনিয়ন পরিষদের একটি কক্ষে মারধর করেন। বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এলে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি হয়। এ ঘটনায় কৃষক শহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে ১৫ এপ্রিল ইউপি চেয়ারম্যান আবদুস সাত্তার, ৫ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য রেজা (৩৫) এবং মো. রুবেলকে (৩০) অভিযুক্ত করে লালপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

বৃহস্পতিবার পাবনা জেলার ঈশ্বরদী এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে নাটোর জেলা পুলিশ। বৃহস্পতিবার পুরে নাটোরের পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা আবদুস সাত্তারকে গ্রেফতারের ঘোষণা দেন। প্রেস ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন এএসপি সদর সার্কেল আবুল হাসনাত, বড়াইগ্রাম এসপি সার্কেল হারুনার রশিদ ও সদর থানার ওসি আলমগীর হোসেন।

এ বিষয়ে নাটোরের পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা বলেন, মামলার পরে আবদুস সাত্তার পলাতক থাকায় তাকে গ্রেফতার করা যায়নি। অবশেষে পুলিশের একটি চৌকস দল দুই দিন চেষ্টা চালিয়ে গতকাল সকালে তাকে গ্রেফতার করে। অন্যদিকে লালপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উম্মুল বানীন দ্যুতি বলেছেন, ইউপি চেয়ারম্যান আবদুস সাত্তারকে কারণ দর্শানোর নোটিস দেওয়া হয়েছে। আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে কেন তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে না তার জবাব দিতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া ভুক্তভোগী কৃষক শহিদুল ইসলামকে ত্রাণ সহায়তা দেওয়া হয়েছে।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –