ব্রেকিং:
গত ২৪ ঘন্টায় দেশে নতুন করে ২ হাজার ৯৭৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে এবং মৃত্যু হয়েছে আরও ৩৯ জনের
  • বৃহস্পতিবার   ০৬ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২২ ১৪২৭

  • || ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

সর্বশেষ:
বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ৭৯তম প্রয়াণ দিবস আজ বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ৭৯তম প্রয়াণ দিবস আজ ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে মাঠে গড়াতে পারে দেশের ঘরোয়া লিগের জনপ্রিয় আসর বিপিএল কাজে ফিরেছে দিনাজপুরের মধ্যপাড়া পাথরখনির শ্রমিকরা ঠাকুরগাঁও-১ আসনের সাংসদ রমেশ চন্দ্র করোনায় আক্রান্ত শেখ হাসিনার দূরদর্শিতায় বিশেষজ্ঞদের পূর্বাভাস ভুল প্রমাণিত হয়েছে: কাদের
১৫০

লালমনিরহাটে সাংবাদিক, চেম্বার সভাপতি ও নার্সসহ করোনা পজেটিভ-১৭   

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৭ জুলাই ২০২০  

লালমনিরহাটে বিভিন্ন  গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকদের মধ্যে প্রথম করোনা ভাইরাস পজেটিভ শনাক্ত  হলেন জেলার সিনিয়র সাংবাদিক ও বীরমুক্তিযোদ্ধা গেড়িলা লিডার ড. এসএম শফিকুল ইসলাম কানু(৬৩)।


এছাড়া লালমনিরহাট চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি এবং জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সিরাজুল হক (৬৫)  ও লালমনিরহাট ১০০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্সসহ মোট ১৭ জন করোনা ভাইরাস পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে।


২৬ জুলাই(রবিবার) রাতে মোট ২৮টি নমুনার রিপোর্ট হাতে পায় লালমনিরহাট সিভিল সার্জন কার্যালয়। এরমধ্যে লালমনিরহাট সদর উপজেলার ২৬টি রিপোর্টের মধ্যে ১৭ জনের করোনা ভাইরাস পজেটিভ শনাক্ত হয়। অপর দুইটি পাটগ্রাম উপজেলার তবে ওই দুইটি রিপোর্ট নেগেটিভ ফলাফল এসেছে।


রবিবার রাতে (২৬ জুলাই) এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন লালমনিরহাট সিভিল সার্জন ডাঃ নির্মলেন্দু রায়।


শফিকুল ইসলাম কানু লালমনিরহাট থেকে প্রথম প্রকাশিত সাপ্তাহিক লালমনিরহাট বার্তার প্রকাশক ও সম্পাদক। তিনি প্রাচীনতম দৈনিক ইত্তেফাক ও বাংলাদেশ টেলিভিশনের লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি। এছাড়াও তিনি সনাক সহ অর্ধশাতিক বিভিন্ন সামাজিক – সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত।


লালমনিরহাট সদর হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স মুন্নী খাতুন(৩৪), একই হাসপাতালের রেকর্ড কিপার হোমায়রা বেগম(৩০) ও মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট (ল্যাব) জাহিদুল ইসলাম(৫৫) করোনা ভাইরাস পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। অপর করোনা ভাইরাস পজেটিভ শনাক্ত ব্যক্তিরা হলেন –লালমনিরহাট চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতির সিরাজুল হকের ব্যক্তিগত গাড়ী চালক লালমনিরহাট সদর উপজেলার নর্থ বেঙ্গলমোড় এলাকার মোঃ সাজু(২৫), জুম্মাপাড়া এলাকার আবুল কালাম আজাদ (৪২), থানাপাড়া এলাকার নব কুমার (৪৮), শ্রী সাগর (৫৭), মোহাম্মদ শামসুল হক(৩৩), সাপটানা এলাকার লাইজু খাতুন (১৩), জাহাঙ্গীর আলম(২৯), বালাটারী এলাকার রুমাইনুল ইসলাম রিপন(৪২), গোশালাবাজার এলাকার জয়নুল আবেদীন (৭০), আবু তাহের মোঃ বশির (৫৫), লালমনিরহাট আনসার ব্যাটালিয়নে কর্মরত আনসার সদস্য  আমির হোসেন (৩৩) ও আনসার সদস্য দুলাল মিয়া (৫৫)।


লালমনিরহাট সিভিল সার্জন কার্যালয়ের পরিসংখ্যান কর্মকর্তা আব্দুল মান্নান জানান, এখন পর্যন্ত জেলার পাটগ্রাম উপজেলায় ৫০২ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে পাঠানো হয়েছিল। এরমধ্যে ৪৯২ জনের রিপোর্ট পাওয়া গেছে। এতে ৯২ জন করোনা ভাইরাস পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে ও সামসুল আলম প্রধান দুলাল (৫৩) নামে একজন গত ৩ জুলাই মারা যায়। এ উপজেলায় করোনা সংক্রমিত ৯২ জনের মধ্যে ৭৮জন সুস্থ হয়েছে। হাতীবান্ধা উপজেলায় ৫৪৪ জন ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে পাঠানো হয়। এরমধ্যে ৫১৭ জনের রিপোর্ট পাওয়া গেছে। এতে ৪৪ জন করোনা ভাইরাস পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে এবং  গত ৯ জুন রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কেরামত আলী (৪৯) নামে এক ব্যক্তির প্রথম মৃত্যু হয়। এ উপজেলার করোনা সংক্রমিত ৪৪ জনের মধ্যে ৩৩জন সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরেছে। কালীগঞ্জ উপজেলায় ৪২৫ জন ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে পাঠানো হয়। এরমধ্যে ৪২২ জনের রিপোর্ট পাওয়া যায়। এতে ৩৪ জন করোনা ভাইরাস পজেটিভ শনাক্ত হলেও সুস্থ হয়ে বাড়ীতে ফিরেছে ২৭ জন। আদিতমারী উপজেলায় ২৪১ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে পাঠানো হয়। ২১৯ জনের রিপোর্ট পাওয়া গেছে। এতে ২৭ ব্যক্তি করোনা ভাইরাস পজেটিভ হয়। এতে ২৭ জন করোনা সংক্রমিত হলেও ২৩ জন সুস্থ হয়ে বাড়ীতে ফিরেছে। লালমনিরহাট সদর উপজেলায় ৮৪৯ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে পাঠানো হয়েছিল। ৭১৩ জনের রিপোর্ট পাওয়া গেছে।৷ এরমধ্যে ১৪৮ জন করোনা ভাইরাস পজেটিভ শনাক্ত হলেও ৫১ জন সুস্থ হয়ে বাড়ীতে ফিরেছে। এছাড়া গত ২০ জুলাই করোনা ভাইরাস পজেটিভ শনাক্ত হয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান লালমনিরহাট চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি সিরাজুল হকের স্ত্রী নাজনীন হক (৫৪)।  


তিনি আরো জানান, জেলার পাঁচ উপজেলার মধ্যে লালমনিরহাট সদর উপজেলায় সর্বোচ্চ ১৪৮জন ব্যক্তি করোনা ভাইরাস পজেটিভ শনাক্ত হয়ে প্রথম অবস্থানে, পাটগ্রাম উপজেলায় ৯২ জন করোনা ভাইরাস পজেটিভ শনাক্ত হয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ অবস্থানে রয়েছে। এছাড়া হাতীবান্ধা তৃতীয়, কালীগঞ্জ চতুর্থ ও আদিতমারী পঞ্চম অবস্থানে রয়েছে।
লালমনিরহাট সিভিল সার্জন ডাঃ নির্মলেন্দু রায় বলেন, লালমনিরহাট জেলায় সংক্রমন বৃদ্ধি পেয়েছে। এখন পর্যন্ত সর্বোমোট ৩৪৫ জন ব্যক্তি সংক্রমিত হয়েছে। এরমধ্যে পাটগ্রামে একজন পুরুষ, হাতীবান্ধায় একজন পুরুষ ও লালমনিরহাট সদর উপজেলায় একজন নারীর মৃত্যু হয়েছে। স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার জন্য সাধারণ মানুষের মাঝে সচেতনতার উপর জোড় দেওয়া হয়েছে। বিষয়টি বাস্তবায়নে পুলিশ ও জেলা প্রশাসন কাজ করছে।
লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক আবু জাফর বলেন, সাধারণ মানুষকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলাচল করতে অনুরোধ করা হচ্ছে। আইনের প্রয়োগে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে। এছাড়াও সচেতনতা তৈরিতে কাজ করা হচ্ছে। 

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –
লালমনিরহাট বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর