ব্রেকিং:
দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরো দুই হাজার ৩৮১ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে ৪৯ হাজার ৫৩৪ জনে দাঁড়িয়েছে। একই সময়ে মারা গেছেন আরো ২২ জন। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৬৭২ জন। সোমবার দুপুর আড়াইটায় করোনা পরিস্থিতি নিয়ে অনলাইনে দৈনন্দিন স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ তথ্য জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা। গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় ছয়জন নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে দুইজন স্বাস্থ্যকর্মী, তিনজন গার্মেন্টসকর্মী ও একজন মাওলানা।
  • মঙ্গলবার   ০২ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৮ ১৪২৭

  • || ১০ শাওয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
করোনাকালে অর্থনীতিতে স্বস্তি দিচ্ছে প্রবাসীদের আয় জুন মাস পর্যন্ত বিদ্যুৎ বিলের বিলম্ব ফি মওকুফের সিদ্ধান্ত বন্ধই থাকছে উবার-পাঠাওসহ সব রাইড শেয়ারিং ভারত সীমান্তের অংশ নিজেদের দাবি করে নেপালের পার্লামেন্টে বিল পেশ খেলাধুলার পাশাপাশি ফলাফলেও এগিয়ে বিকেএসপির ক্যাডেটরা
৭৩

মাশরাফি আলাদিনের চেরাগ পেলে যে তিনটি ইচ্ছে পূরণ করবেন 

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৮ মে ২০২০  

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমান সংসদ সদস্য (নড়াইল-২) মাশরাফি বিন মর্তুজা প্রায়ই বলে থাকেন, জীবন নিয়ে তার কোন আফসোস নেই। যা পেয়েছেন বা যা পাননি, এসবের হিসেব কষতে বসেন না কখনও।

তবে একইসঙ্গে নিজের শৈশবের ব্যাপারে খানিক স্মৃতিকাতর হতেও দেখা যায় তাকে। অন্য কিছু মিস না করলেও, নিজের ছোটবেলার সময়টা যেন এখনও টানে মাশরাফিকে। আর এ কারণে জীবনের এতটা পথ পাড়ি দিয়ে আসার পরেও, কোন অলৌকিক ক্ষমতা পেলে সেই শৈশবেই ফিরে যেতে যান তিনি।
বাস্তবজীবনে আলাদিনের চেরাগ বলতে কিছু নেই। তবে আরব্য রজনী অন্যতম জনপ্রিয় গল্পের আলাদিনের চেরাগ থেকে বেরিয়ে আসা দৈত্য পূরণ করেন তিনটি ইচ্ছা। তেমনই এক চেরাগ যদি পেয়ে যান মাশরাফি? রোববার রাতে তার ব্রেসলেট নিলামের লাইভে তোলা হয় এ প্রসঙ্গ।

জিজ্ঞেস করা হয়, হুট করে যদি আলাদিনের দৈত্য আসে, আপনি কোন তিনটা জিনিস চাইবেন? খানিক ভেবে মাশরাফির উত্তর, ‘প্রথমত, প্রত্যেকটা মানুষ যেটা চায়। শৈশবে ফিরে যেতে চাইব। আমি আমার স্কুল জীবনে ফিরে যেতে চাইব, আমার স্কুলের বন্ধুরা, সেই সময়টা।’

তিনি বলতে থাকেন, ‘দ্বিতীয়ত, একটা জিনিস চাইব যে, শৈশবের সময়টা পার করে আসার পর ক্যারিয়ারের শুরুর সময়টা। যদিও আলহামদুলিল্লাহ সবকিছু নিয়ে। আমার আরও অনেক কিছু হতে পারত। বাংলাদেশ দলের রেজাল্টও ভালো হতে পারত। আমি যদি ফিট থাকতাম, সুস্থ থাকতাম...’

‘তবে আলহামদুলিল্লাহ্‌! আল্লাহর অশেষ রহমত ছিল যে আমি এতদিন পর্যন্ত খেলতে পেরেছি। এটা নিয়ে আমার কোন দুঃখ। যেহেতু আপনি প্রশ্ন করলেন, ঐ সময়টায় ফিরে যেতে পারলে... এখন আমি জানি যে নিজেকে কীভাবে মেইন্টেন করলে সুস্থ থাকব এবং দেশের হয় ভাল কিছু করতে পারব।’
সবশেষ তিনি বেছে নেন নিজের পরিবারকে। বলেন, ‘আর সবশেষ বলবো যে, যে পরিবারে জন্মগ্রহণ করেছি, সেই পরিবারই আবার ফিরে পেতে চাই।’

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –
খেলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর