ব্রেকিং:
রংপুর মেডিকেল কলেজের (রমেক) পিসিআর ল্যাবে ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৫৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রংপুর মেডিকেল কলেজের (রমেক) অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ একেএম নুরুন্নবী লাইজু।
  • শুক্রবার   ১৪ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ৩০ ১৪২৭

  • || ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

সর্বশেষ:
শোক দিবস উপলক্ষে চারটি বিশেষ ডিজাইনের ই-পোস্টার প্রকাশিত জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রাতে আ`লীগের বিশেষ ওয়েবিনার ঢাকায় ভারতীয় হাইকমিশনার হলেন বিক্রম দোরাইস্বামী দায়িত্ব পালনে কোনো কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অপেশাদার আচরণের অভিযোগ পেলে ছাড় দেয়া হবে না: এসপি বিপ্লব এখনো কোনো পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত হয়নি: শিক্ষা মন্ত্রণালয়
৫২

মন্ত্রী পুত্রের ঈদ উপহার পেয়ে কেঁদে ফেললেন প্রতিবন্ধী দম্পতি     

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৩০ জুলাই ২০২০  

করোনাকালে প্রতিবন্ধী দম্পতির পাশে দাঁড়িয়েছেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদের ছেলে রাকিবুজ্জামান আহমেদ। বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) দুপুরে মন্ত্রীপুত্রের পক্ষে কালীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রেফাজ রাঙ্গা প্রতিবন্ধী শিল্পী দম্পতির বাড়িতে একটি কোরবানির ছাগল ও ঈদ উপহার সামগ্রী পৌঁছে দেন। এ সময় ঈদ উপহার সামগ্রী ও একটি কোরবানির ছাগল হাতে পেয়ে আনন্দে কেঁদে ফেলেন তারা।

জানা গেছে, কালীগঞ্জ উপজেলার দলগ্রাম ইউনিয়নের শ্রীখাতা কলাবাগান গ্রামের দৃষ্টিপ্রতিবন্ধি শিল্পী শ্যামলী আক্তার জবা ও তার স্বামী শারীরিক প্রতিবন্ধী শিল্পী দুলাল মিয়ার পরিবেশনায় সম্প্রতি স্থানীয় প্রেস ক্লাবে ফেসবুক লাইভে গানের আয়োজন করা হয়। ওই লাইভে তাদের দুর্দশার চিত্রের কথা। তাছাড়াও অনুষ্ঠানের প্রতিবন্ধী শিল্পীর গান শুনে মুগ্ধ হয়ে তাদের পাশে দাঁড়ানোর প্রতিশ্রুতি ব্যাক্ত করেন সমাজ কল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদের ছেলে রাকিবুজ্জামান আহমেদ। এরই ধারাবাহিকতায় প্রতিবন্ধী শিল্পী দম্পতির বাড়িতে আসন্ন ঈদ উল আজাহার উপলক্ষে উপহার সামগ্রী পাঠান তিনি। তার পক্ষে এসব সামগ্রী প্রতিবন্ধী দম্পতির বাড়িতে পৌঁছে দেন কালীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রেফাজ রাঙ্গা।

উপহার সামগ্রীর মাধ্যে ছিল কোরবানির জন্য একটি খাসি, চাল, ডাল, তেল ও মসলাসহ নানান খাদ্য সামগ্রী। এ সময় স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরাও উপস্থিত ছিলেন।

শারীরিক প্রতিবন্ধী শিল্পী দুলাল মিয়া বলেন, করোনাভাইরাস আসার পর থেকেই বাড়ির বাহিরে যাওয়া হয় না। মাঝখানে অটোরিকশা চালিয়ে ঘরের খাবার সংগ্রহ করেছি। কিন্তু এখন আর অটোরিকশাও কেউ আমাকে দেয় না। ঈদ নিয়ে চিন্তায় ছিলাম। ঈদের দিন পরিবারকে কিভাবে মাংস খাওয়াবো। এই বিপদের সময় সমাজক্যালণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদের ছেলে রাকিবুজ্জামান আহমেদ পাশে দাঁড়াবেন ভাবতে পারিনি। আল্লাহ ওনাকে ও মন্ত্রী পরিবারকে ভালো রাখুক।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –
লালমনিরহাট বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর