ব্রেকিং:
গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৯১ জনের মৃত্যু হয়েছে, শনাক্ত হয়েছে ৪ হাজার ৫৫৯ জন
  • বুধবার   ২১ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ৭ ১৪২৮

  • || ০৭ রমজান ১৪৪২

সর্বশেষ:
বিএনপির আমলের ৯০ টাকার সার এখন ১২ টাকা- প্রধানমন্ত্রী ‘খাদ্য উৎপাদন বাড়াতে কৃষকদের সব ধরনের সহযোগিতা করা হচ্ছে’ স্বাস্থ্যবিধি মানাতে রংপুর জেলা প্রশাসনের মোবাইল কোর্ট ডোমারে ঝুপড়ির আগুনে পুড়ে ভিক্ষুকের মৃত্যু আজ সপ্তম দিনের মতো সারাদেশে চলছে সর্বাত্মক লকডাউন

বিএনপির ৭ই মার্চ পালনের ঘোষণা রাজনৈতিক ভণ্ডামি: কাদের

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৭ মার্চ ২০২১  

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বলেছেন, বিএনপির ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ পালনের ঘোষণা আরেকটা রাজনৈতিক ভন্ডামি ছাড়া আর কিছুই না। এর মধ্য দিয়ে তারা তাদের মুখচ্ছবিকে মুখোশ দিয়ে ঢাকতে চাইছে।

গতকাল শনিবার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যৌথসভার শুরুতে তিনি একথা বলেন। আওয়ামী লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সঙ্গে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ উত্তর-দক্ষিণ এবং সহযোগী সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আজ হঠাত্ করে ৪৬ বছর পর বিএনপির বোধোদয় হয়েছে। ৭ই মার্চের সেই ঐতিহাসিক ভাষণকে তারা শুধু নিষিদ্ধই করেনি, এ ভাষণ যারা বাজাত তাদেরকে নির্যাতন করত, জেলে দিত এবং অনেককে নির্যাতন করে পঙ্গু পর্যন্ত করে দিয়েছিল। সেই ৭ই মার্চ তারা পালন করছে। আসলে মুখচ্ছবিকে মুখোশ দিয়ে ঢাকতে চাইছে বিএনপি। একদিকে তারা ৭ই মার্চ পালন করছে, আবার আরেকদিকে বলছে, একটি ভাষণ স্বাধীনতা এনে দিয়েছে। আসলে এই কথাটি বলার জন্যই তারা ৭ই মার্চের আলোচনা করছে। এটা তাদের রাজনৈতিক ভন্ডামি ছাড়া আর কিছুই নয়।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘ঐতিহাসিকভাবে তাত্পর্যপূর্ণ মার্চ মাসে বিএনপির কর্মসূচির উদ্বোধন করেছে আদালত কর্তৃক দণ্ডিত পলাতক একজন আসামি। যা এদেশের জনগণ ভালোভাবে নেয়নি। একজন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিকে দিয়ে মহান স্বাধীনতার মাসে কর্মসূচির উদ্বোধন করে বিএনপি আমাদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সঙ্গে তামাশা করেছে। যার মাধ্যমে তারা বিশ্বাসঘাতকতা করেছে বাঙালির আত্মপরিচয় বিনির্মাণের ইতিহাসের সঙ্গে।’

রাজশাহীর বিভাগীয় সমাবেশে বিএনপির এক নেতার আরেকটি ১৫ আগস্ট ঘটানোর বক্তব্যের সমালোচনা করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমাদের কাছে এটা বোধগম্য নয়, এই ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য ঐ নেতার ব্যক্তিগত নাকি বিএনপির দলীয় অবস্থান? স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর এই ঐতিহাসিক ক্ষণে তারা এখনো হত্যা-ক্যু-ষড়যন্ত্র-চক্রান্তের রাজনীতিতে ব্যস্ত।’ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের প্রতি প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন, ‘আজ ফখরুল সাহেব মুক্তিযোদ্ধা-মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ, স্বাধীনতার আদর্শ নিয়ে চিত্কার করছেন, মায়াকান্না করছেন। তিনি কী জবাব দেবেন? সুবর্ণজয়ন্তী পালনের মুহূর্তে এই ধরনের ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য দেওয়ার সাহস আপনার দলের নেতা কী করে পেল? এটা আপনাদের দলীয় বক্তব্য কি না? আপনার কাছে জানতে চাই?’

ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত যৌথসভায় দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, ডা. দীপু মনি, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, বিএম মোজাম্মেল হক, মির্জা আজম ও আফজাল হোসেন, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সভা থেকে মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে আওয়ামী লীগের গৃহীত বিভিন্ন কর্মসূচির ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –