ব্রেকিং:
দিনাজপুরে কালবৈশাখীর তাণ্ডব, ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির সম্ভাবনা। কাহারোল থানার ১ নং ডাবোর ইউনিয়নে বজ্রপাতে একজন নিহত, আহত ২
  • রোববার   ০৯ মে ২০২১ ||

  • বৈশাখ ২৬ ১৪২৮

  • || ২৬ রমজান ১৪৪২

সর্বশেষ:
লাইলাতুল কদর এক মহিমান্বিত রজনী- প্রধানমন্ত্রী পবিত্র রজনীতে করোনা থেকে রক্ষার প্রার্থনা করি- রাষ্ট্রপতি বিরামপুরে `জয়বাংলা ভিলেজ’ পরিদর্শনে এমপি শিবলী সাদিক রংপুরে হঠাৎ বেড়েছে ছাগল চুরি মরিচের ফলন ভালো, দামে শঙ্কায় কৃষক

ঠাকুরগাঁওয়ের সেই রিকশাচালকের সন্তানের অস্ত্রোপচার

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২০ এপ্রিল ২০২১  

অ্যাম্বুলেন্স ভাড়ার টাকা না থাকায় ঠাকুরগাঁও থেকে ৯ ঘণ্টা রিকশা চালিয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা শিশু জান্নাতের অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। বর্তমানে শিশুটির শারীরিক অবস্থা আগের চেয়ে ভালো রয়েছে। ৭ মাস বয়সী শিশু জান্নাতের পেটে নাড়ি পেঁচিয়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছিল। রোববার বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পর চিকিৎসকেরা বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে অস্ত্রোপচার করার সিদ্ধান্ত নেন।

গতকাল সোমবার (১৯ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টায় রমেক হাসপাতালের শিশু সার্জারি বিভাগের সহকারী রেজিস্ট্রার উপেন্দ্র নাথ রায় শিশুর অস্ত্রোপচার করেন। পেটের মধ্যে নাড়ি পেঁচিয়ে যাওয়ায় অস্ত্রোপচার করা হয় বলে জানান তিনি। অস্ত্রোপচারের পর শিশু জান্নাতকে হাসপাতালের পোস্ট অপারেটিভ ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে বলে জানান রিকশাচালক বাবা তারেক ইসলাম। সেখানে তার স্ত্রী সুলতানা বেগমের সঙ্গে আছে শিশুটি।

আদরের সন্তানকে বাঁচাতে অনেক কষ্ট করে শূন্য হাতে রিকশা চালিয়ে ১১০ কিলোমিটার পথ পাড়ি হাসপাতালের পৌঁছানোর পর ঢাকা পোস্টের ফেসবুক লাইভে সংবাদ প্রচার এবং তাৎক্ষণিকভাবে বিভিন্নজনের সহযোগিতায় সব কষ্ট নিমিষেই হারিয়ে যায় বলে উল্লেখ করেন তারেক ইসলাম। সাংবাদিকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি বলেন, ঠাকুরগাঁও থেকে আমার কষ্ট করে হাসপাতালে আসার সংবাদ সর্বপ্রথম লাইভে ঢাকা পোস্ট প্রচার করে। পরে আরও অনেক সাংবাদিক এসে সংবাদ করেছে। আমার কষ্টকে মিডিয়ায় প্রচার করায় রংপুরে অবস্থিত স্বপ্ন নামের সুপারশপ প্রতিষ্ঠানটি আমার অসুস্থ শিশুর চিকিৎসাসেবার জন্য যাবতীয় ব্যয়ভার নিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এছাড়া রংপুুুর জেলা প্রশাসক আসিব আহসান, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন উই ফর দেমসহ বিভিন্ন সংগঠন, ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান থেকে আর্থিক অনুদান পেয়েছি। দেশ-বিদেশ থেকে এখন পর্যন্ত সোয়া ৪ লাখ টাকার মতো আর্থিক সহায়তা পেয়েছি। অথচ যখন ঠাকুরগাঁও থেকে রংপুুুরের উদ্দেশে রওনা করেছিলাম, তখন আমার কাছে একশ টাকাও ছিল না।
শিশুটির বাবা তারেক ইসলাম বলেন, আমি আল্লাহর ওপর ভরসা করে শূন্য হাতে এসেছিলাম। আমার বাচ্চার অপারেশন করাতে এক টাকাও খরচ করতে হয়নি। যত টাকা অনুদান পেয়েছি, সবগুলো বাচ্চার ভবিষ্যতের জন্য ব্যাংকে জমা রাখব।

শিশু সার্জারি ওয়ার্ডের চিকিৎসক সহকারী রেজিস্ট্রার উপেন্দ্র নাথ রায় বলেন, শিশুটির পেটে একটির ভেতর আরেকটি নাড়ি ঢুকে পেঁচিয়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছিল। সোমবার দুপুরে শিশুটির অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। সার্বক্ষণিক চিকিৎসাসেবা দেওয়া হচ্ছে। শিশুটি এখন ভালো রয়েছে।

স্বপ্ন সুপারশপের অপারেশন ম্যানেজার ফয়সাল শামস বলেন, শিশুটির চিকিৎসার সব দায়িত্ব নেওয়া হয়েছে। অস্ত্রোপচারসহ সব ধরনের চিকিৎসা ব্যয় আমাদের পক্ষ থেকে করা হচ্ছে। শিশুটি সুস্থ হওয়ার পর ঠাকুরগাঁওয়ে বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছে দিতে যা যা করণীয়, সবটুকুই আমরা করব।

গত ১৩ এপ্রিল রাতে শিশু জান্নাতকে ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। সেখানে চিকিৎসা চলা অবস্থায় পরদিন উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন চিকিৎসক। কিন্তু অ্যাম্বুলেন্স ভাড়ার টাকা জোগাড় করতে না পেরে তিনদিন পর শনিবার রিকশা চালিয়ে সন্তানকে নিয়ে রংপুরে আসেন তারেক।
ব্যাটারিচালিত রিকশাচালক তারেক ইসলাম ও স্ত্রী সুলতানা বেগমের অভাব-অনটনের সংসার। রোজগারের একমাত্র সম্বল একটি চার্জার রিকশা।

তারেক ইসলাম ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার দক্ষিণ সালন্দর গ্রামের রামবাবুর গোডাউন এলাকার বাসিন্দা আনোয়ার হোসেনের বড় ছেলে। তার ৯ ও ৩ বছর বয়সী আরও দুই মেয়েসন্তান রয়েছে।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –