ব্রেকিং:
দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরো দুই হাজার ৩৮১ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে ৪৯ হাজার ৫৩৪ জনে দাঁড়িয়েছে। একই সময়ে মারা গেছেন আরো ২২ জন। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৬৭২ জন। সোমবার দুপুর আড়াইটায় করোনা পরিস্থিতি নিয়ে অনলাইনে দৈনন্দিন স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ তথ্য জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা। গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় ছয়জন নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে দুইজন স্বাস্থ্যকর্মী, তিনজন গার্মেন্টসকর্মী ও একজন মাওলানা।
  • মঙ্গলবার   ০২ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৮ ১৪২৭

  • || ১০ শাওয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
করোনাকালে অর্থনীতিতে স্বস্তি দিচ্ছে প্রবাসীদের আয় জুন মাস পর্যন্ত বিদ্যুৎ বিলের বিলম্ব ফি মওকুফের সিদ্ধান্ত বন্ধই থাকছে উবার-পাঠাওসহ সব রাইড শেয়ারিং ভারত সীমান্তের অংশ নিজেদের দাবি করে নেপালের পার্লামেন্টে বিল পেশ খেলাধুলার পাশাপাশি ফলাফলেও এগিয়ে বিকেএসপির ক্যাডেটরা
১৬৯

করোনা নিয়ে ঢাকা থেকে গার্মেন্টস কর্মী পালিয়ে লালমনিরহাটে         

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৫ মে ২০২০  

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা থেকে পালিয়ে লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার সীমান্তবর্তী ধবলসুতি গ্রামে এসেছেন এক গার্মেন্টস কর্মী (৩০)। বৃহস্পতিবার (১৪ মে) রাত সাড়ে ১০টার দিকে তাকে আটক করে পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জে কর্মরত ওই গার্মেন্টস কর্মী জ্বর, সর্দি ও গলা ব্যাথা অনুভব করলে ঢাকায় তার নমুনা পরীক্ষা করান। বুধবার (১৩ মে) তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। রিপোর্ট হাতে পেয়ে তিনি পালিয়ে গ্রামের বাড়ি লালমনিরহাটের পাটগ্রামের ধবলসুতি গ্রামে চলে আসেন। পরে ঢাকা থেকে পাটগ্রাম থানা পুলিশ ও লালমনিরহাটের সিভিল সার্জনকে বিষয়টি জানানো হয়। তাকে শনাক্ত করে রাতে পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।
করোনা আক্রান্ত ওই গার্মেন্টস কর্মী জানান, ঢাকা থেকে ১৪ জন মিলে একটি মাইক্রোবাস ভাড়া করে রংপুরে আসেন। সবাই রংপুরে নেমে যান। পরে রংপুর থেকে কয়েক বার অটোরিকশা বদল করে পাটগ্রামে তার গ্রামের বাড়িতে আসেন তিনি।

এদিকে তার দেয়া তথ্য মতে রংপুরে নেমে যাওয়া মাইক্রোবাসের চালক, অটোরিকশার যাত্রী ও চালকদের সন্ধান করা হচ্ছে। কারণ সংক্রামণ রোধে তাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হবে।

পাটগ্রাম থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন কুমার মোহন্ত বলেন, তথ্য পেয়েই ওই গার্মেন্টস কর্মী ধরে নিয়ে এসে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে।

লালমনিরহাটের সিভিল সার্জন ডা. নির্মলেন্দু রায় বলেন, ওই গার্মেন্টস কর্মীর বাড়ি স্থানীয় প্রাশাসনের মাধ্যেমে লকডাউন করা হয়েছে।

– লালমনিরহাট বার্তা নিউজ ডেস্ক –
লালমনিরহাট বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর